টপিকঃ চীনের জিনজিয়াং প্রদেশে বোরকা নিষিদ্ধ করেছে চীনা সরকার।

গতকাল চীনের জিনজিয়াং প্রদেশে বোরকা নিষিদ্ধ করেছে চীনা সরকার। এর একদিন আগে ৬ জন মুসলমানকে গুলি করে হত্যা করে সরকারি বাহিনী। চীন সরকার দাবি করে, ঐ ৬ জন নাকি বিষ্ফোরক দ্রব্যবহন করছিলো। আর বোরকার মধ্যে বিষ্ফোরক বহন হতে পারে, এই অজুহাতে পরের দিন নিষিদ্ধ হলো বোরকা। (http://goo.gl/fnPcTc)

---------------------------------------------------

চীনে ইসলামের প্রবেশ আজকে থেকে নয়। নবীজি সাহাবীগণকে ইসলাম প্রচারের জন্য চীনে পাঠিয়েছিলেন। হযরত উমর রদ্বিয়াল্লাহু’র সময়ও সাহাবীগণ চীনে এসেছিলেন, যেই দলের নেতৃত্বে ছিলেন হযরত সাদ বিন আবি ওয়াক্কাস রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু। চীনে গুয়াংজো প্রদেশে হযরত সাদ বিন আবি ওয়াক্কাস রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু’র মাজার শরীফ সেই দলিলই বহন করে। চীন ফেরত মানুষরা জানিয়েছে, চীনা নাস্তিক সরকার ১৬ বার বুলডোজার দিয়ে এ মাজার শরীফ ভাঙ্গতে গিয়েছিলো, কিন্তু প্রতিবারই বুলডোজার বিকল হয়ে পড়ে। (সুবহানাল্লাহ)

----------------------------------------------------------

জিনজিয়াং প্রদেশের নাম জিনজিয়াং ছিলো না, এর নাম ছিলো ইস্ট তুর্কিস্তান। এটি একটি স্বাধীন মুসলিম সালতানাতের অংশ ছিলো। কিন্তু চীনা নাস্তিকরা এটি দখল করে রেখেছে এবং মুসলমানদের উপর যুলুম নির্যাতন করছে। ইহুদীরা ইসরাইলের স্বাধীনতা নিলো, খ্রিস্টানরা ইস্ট তীমুর আর দক্ষিণ সুদানের স্বাধীনতা নিলো। মুসলমানরা কি পারবে না, পুনরায় ইস্ট তুর্কীস্তানকে স্বাধীন করতে ??

-------------------------------------------------------

'আশারায়ে মুবাশশিরা' বা বিশেষভাবে জান্নাতের সুসংবাদপ্রাপ্ত ১০ জন সাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুমগণের একজন হচ্ছে হযরত সাদ বিন আবি ওয়াক্কাস রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু। সুবহানাল্লাহ। ইসলামের শুরুতে সকল জিহাদেই হযরত সাদ বিন আবি ওয়াক্কাস রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু’র অত্যন্ত বিরত্বে সাথে শরীক ছিলেন। বদর জিহাদ, উহুদ জিহাদ সর্বক্ষেত্রেই, সুবহানাল্লাহ। উহুদ যুদ্ধে যে কয়েকজন সাহাবি নিজেদের জীবনকে তুচ্ছ জ্ঞান করে নবীজির চতুর্কিকে ব্যুহ তৈরী করেছিলেন তার মধ্যে একজন হচ্ছেন হযরত সাদ বিন আবি ওয়াক্কাস রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু। সেদিনকার ঘটনা বুখারি শরিফের এক হাদিসে হযরত সাদ বিন আবি ওয়াক্কাস রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু নিজেই এভাবে বর্ণনা করেছেন, উহুদের রণাঙ্গনে নবীজি সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম স্বীয় তীরদান হতে সব তীর আমার সামনে রেখে দিয়ে আমাকে বললেন, 'আমার মা-বাবা তোমার প্রতি উৎসর্গ হোক, তুমি যথাসাধ্য তীর ছুড়তে থাকে।' (বুখারি শরীফ)

-------------------------------------------------------------

যে দেশে এরকম এক বীর সাহাবি শায়িত আছেন, সেই দেশ আবার মুসলমানদের আয়ত্বে আসবে একদিন, ইনশাআল্লাহ।

Re: চীনের জিনজিয়াং প্রদেশে বোরকা নিষিদ্ধ করেছে চীনা সরকার।

Raza420 লিখেছেন:

চীনা নাস্তিক সরকার ১৬ বার বুলডোজার দিয়ে এ মাজার শরীফ ভাঙ্গতে গিয়েছিলো, কিন্তু প্রতিবারই বুলডোজার বিকল হয়ে পড়ে। (সুবহানাল্লাহ)

সূত্র দেন।

লেখাটি LGPL এর অধীনে প্রকাশিত

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন মেহেদী হাসান (১৫-০১-২০১৫ ১৮:০৯)

Re: চীনের জিনজিয়াং প্রদেশে বোরকা নিষিদ্ধ করেছে চীনা সরকার।

দ্যা ডেডলক লিখেছেন:
Raza420 লিখেছেন:

চীনা নাস্তিক সরকার ১৬ বার বুলডোজার দিয়ে এ মাজার শরীফ ভাঙ্গতে গিয়েছিলো, কিন্তু প্রতিবারই বুলডোজার বিকল হয়ে পড়ে। (সুবহানাল্লাহ)

সূত্র দেন।

surprised surprised surprised এগুলা শুধুই অন্ধবিশ্বাসের জিনিষ......সুত্র চাইতে নেই.......আর চায়না বুলডোজার বিকল হওয়াটা খুব একটা অস্বাভাবিক ঘটনা না....... big_smile
আরেকটা কথা.....চীন কিন্তু পাকিস্তানের জানের দোস্ত.......

টিপসই দিবার চাই....স্বাক্ষর দিতে পারিনা......

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন নিয়াজ মূর্শেদ (১৫-০১-২০১৫ ২০:০১)

Re: চীনের জিনজিয়াং প্রদেশে বোরকা নিষিদ্ধ করেছে চীনা সরকার।

Raza420 লিখেছেন:

চীন ফেরত মানুষরা জানিয়েছে, চীনা নাস্তিক সরকার ১৬ বার বুলডোজার দিয়ে এ মাজার শরীফ ভাঙ্গতে গিয়েছিলো, কিন্তু প্রতিবারই বুলডোজার বিকল হয়ে পড়ে। (সুবহানাল্লাহ)


এই ধরনের কোনো খবরতো টিভিতে দেখলাম না। বুলডোজার কি আল্লাহ্‌ বিকল করে দিয়েছিলেন প্রতিবার নাকি কোনো যান্ত্রিক ক্রুটির জন্য বার বার বিকল হয়েছিলো?