সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন rony.jmc (০২-১২-২০১৪ ২০:১২)

টপিকঃ ডিসেম্বরে ঢাকা অঞ্চলে এসিএম ‘আইসিপিসি-২০১৪’

আসন্ন শুক্রবার সকাল ১০ টায় এই প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। ফোরামের প্রোগ্রামার ভাইয়েরা কি কেও অংশগ্রহণ করেছেন?

৫ ও ৬ ডিসেম্বরে ঢাকায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক মর্যাদাপূর্ণ এসোশিয়েশন অব কম্পিউটিং মেশিনারিজ - ইন্টা. কলেজিয়েট প্রোগ্রামিং কনটেস্ট (এসিএম-আইসিপিসি)-২০১৪।

মঙ্গলবার রাজধানীর একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব বিজিনেস অ্যান্ড টেকনলজি (বিইউবিটি) এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।
এতে প্রধান অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বুয়েটের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রফেসর ড. মোহাম্মদ কায়োকোবাদ এবং বিশেষ অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইইসিএস বিভাগের প্রফেসর ড. আবুল এল হক, বিইউবিটির উপাচার্য প্রফেসর মো. আবু সালেহ, বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান, বিইউবিটির রেজিস্ট্রার প্রফেসর মো. এনায়েত হোসেন মিয়া, বিইউবিটির ফ্যাকাল্টি অফ অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ডীন প্রফেসর ড. মমিনুল হক প্রমুখ।

সম্মেলনে বুয়েটের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রফেসর ড. মোহাম্মদ কায়োকোবাদ বলেন, ‘বাংলাদেশ সীমিত সম্পদের দেশ। তাই দেশকে উন্নত করতে হলে দেশের সম্পদ বাড়াতে হবে। আর এই তথ্যপ্রযুক্তি হচ্ছে সম্পদ উৎপাদনের সবচেয়ে বড় হাতিয়ার।’

বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান বলেন, ‘দেশ উন্নত করতে হলে প্রোগ্রামার বাড়াতে হবে। আমাদের এমন একটা সময়ে পৌঁছানো দরকার যাতে আমরাও ফেসবুক, মাইক্রোসফটের মতো বড় বড় প্রতিষ্ঠান বানাতে পারি।’

উক্ত প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতায় দেশি -বিদেশি মিলিয়ে ৭২টি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ৯৬২টি দল আবেদন করে। এই আবেদন থেকে ৮০২টি দল বাছাই পর্বে অংশগ্রহণের সুযোগ পায়। এরপর অনলাইন বাছাই পর্বে ৭৭৫ টি দল অংশগ্রহণ করেন।
সংবাদ সম্মেলনে আয়োজকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়, দেশি-বিদেশি মোট ৫৯টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে মোট ১৩৫টি দল চূড়ান্ত প্রতিযোগাতায় অংশ নিবে এবং প্রতিটি দলে ৩ জন করে প্রতিযোগী ও একজন কোচ থাকবে।

সূত্র

রনি