সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন Jol Kona (১৭-০৬-২০১৪ ২২:৫১)

টপিকঃ হালুয়ার দোকান!!!

শব-ই-বরাত এর দিন মানেই হালুয়া-রুটি। বানাও আর পাড়া প্রতিবেশীদের বাড়িতে দেও।
একটা চল হয়ে গেছে আমাদের দেশে। এই রীতির প্রচলন অন্য কোন দেশের আছে এমন শুনি নাই!! তবে আস্তে আস্তে এই রীতিটা উঠে যাচ্ছে। আগের মত এত আয়োজন হয় না এখন!


ছোট থাকতে আম্মা আমাকে আর ভাইয়াকে ইয়া বসাল বিশাল ট্রে ধরায় দিয়া! পুরা বিল্ডিং এর মানুষের বাসায় বাসায় পাঠাতো! কি যে কেটা অবস্থা!  ghusi আমরা দিলে অন্য জনও আমাদের কিছু কিছু দিত! সেটার অর্ধেক বাসায় ফিরায় আনতে আনতে নাই হয়ে যাইত! tongue আমার আর ভাইয়ার পেটে চলে যাইত!
আম্মা আমার জন্য স্পেশালি গাজরের আর বুটের হালুয়া বানাইত। আর সুজির হালুয়া তো কমন! এটা না থাকলে আর কিসের কি!
 
এখান আপনারা আমার কিচেনের প্রবেশ করে দেখেন কি কি ধরনের হালুয়া আছে!
মোট ২২ রকমের হালুয়া নিয়ে এসেছি আমি আপনাদের জন্য। এক সাথে অনেক গুলো দিলাম! যার যেটা ভাল লাগে সেটা ট্রাই করে দেখবেন! দোকানের ভেতরের দুইপাশের হালুয়া সাজায় রাখা হয়েছে! আমরা তাহলে, দোকানের ডান পাশ থেকে দেখা শুরু করি! কি বলেন! tongue_smile

১/ খেজুরের হালুয়া

উপকরণ:

১) খেজুর ২ কাপ বিচি ছাড়া ,
২) ঘন দুধ তরল ২ কাপ ,
৩) চিনি ১/৪ কাপ ,
৪) মাওয়া ১ কাপ ,
৫) ঘি / তেল পরিমান মত ,
৬) এলাচ ২/৩ টা.

প্রণালিঃ

(১) ২ কাপ ঘন দুধের সাথে খেজুর সিদ্ধ করে পানি শুকিয়ে নিন। নরম হলে ব্লেন্ড করে/বেটে নিন।
(২) পাত্রে তেল/ ঘি দিন। পরিমান মত এলাচি দিন। এবার খেজুর এর মিশ্রণটি ঢেলে দিন মাঝারি আঁচে নাড়তে থাকুন।
(৩) ফুটে উঠলে চিনি দিন, ১ চিমটি লবন দিন। অল্প আঁচে নাড়তে থাকুন।
(৪) হালুয়া ঘি-এর উপরে উঠলে মাওয়া গুঁড়ো দিয়ে ভালো করে মিক্স করে নিন।
(৫) প্লেটে ঘি মাখিয়ে হালুয়া ঢেলে নিন। চেপে চেপে সমান করুন। ভালো মত ঠান্ডা হলে পছন্দ অনুযায়ী কেটে বাদাম দিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার খেজুরের হালুয়া।

https://fbcdn-sphotos-f-a.akamaihd.net/hphotos-ak-xpa1/t1.0-9/10390371_482219678578680_4130999519582296239_n.jpg
খেজুরের হালুয়া


২/ সুজির মোহনভোগ

উপকরণ:

১) সুজি ২ কাপ,
২) চিনি দেড় কাপ,
৩) ঘি ১/৪ কাপ,
৪) ঘন দুধ দেড় কাপ ,
৫) কিশমিশ, পেস্তাবাদাম, এলাচ গুঁড়া পরিমাণ মতো বা পছন্দমতো।

প্রণালি:

(১) প্রথমে সুজি লাল করে ভেজে নামিয়ে রাখুন।
(২) এবার কড়াইতে ঘি দিন। ঘি গরম হলে সুজি ও দুধ দিয়ে ভালোভাবে ৫ মিনিট নেড়ে নিন।
(৩) তারপর চিনি দিয়ে আরো ৫ মিনিট নাড়তে থাকুন।
(৪) এবার কিশমিশ, পেস্তাবাদাম, এলাচ গুঁড়া, দিয়ে নামিয়ে একটি ঘি মাখানো ট্রে-তে বিছিয়ে নিন। হাত (৫) দিয়ে চেপে সমান করুন ও ঠাণ্ডা হতে দিন।
(৬) ঠাণ্ডা হলে সুন্দর করে কেটে পরিবেশন করুন সুজির মোহনভোগ।


৩/পেশোয়ারি হালুয়া


উপকরণঃ

১) কাঠ বাদাম/পেস্তা বাদাম আধা কাপ,
২) নারিকেল বাটা ১/২ কাপ,
৩) ছানা ১ /২ কাপ,
৪) চিনি ১ কাপ,
৫) এলাচ গুঁড়ো ১ চা চামচ,
৬) তরল দুধ আধা কাপ (বাদামের জন্য),
৭) মাওয়া আধা কাপ, ঘি ৩ টেবিল চামচ কাপ, জাফরান

যেভাবে তৈরি করবেন-
(১) তরল দুধ ও বাদাম ভালোভাবে ব্লেন্ড করুন। এরপর জ্বাল দিয়ে পানি শুকিয়ে ফেলুন।
(২) তারপর টি ননস্টিক প্যান এ ঘি দিন , বাদাম এর মিশ্রণ দিয়ে নাড়তে থাকুন তারপর ছানা, নারিকেল বাটা, চিনি দিয়ে নাড়ুন, মাওয়া ও এলাচ দিয়ে ভুনে নিন। জাফরান (জাফরান দুধে ভিজইয়ে নেবেন)
(৩) বার সব কিছু একসঙ্গে ভুনে যখন প্যান এর গা থেকে উঠে আসবে , তখন বাটিতে ঢেলে কিশমিশ, বাদাম হালুয়ার ওপর ছড়িয়ে দিন/ সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

৪/ ছোলার ডালের হালুয়া

উপকরণ :
১) ছোলার ডাল ১/২ কেজি,
২) দুধ ১ লিটার,
৩) গুড়ো দুধ ১ কাপ,
৪) চিনি ১ কেজি,
৫) ঘি চারভাগের এক কাপ,
৬) এলাচ গুঁড়ো সামান্য ,
৭) গোলাপ পানি ১ টেবিল চামচ,
৮) কিসমিস ৫ টেবিল চামচ,
৯) পেস্তা বাদাম কুচি ৩ টেবিল চামচ।

প্রণালী :

(১) ছোলার ডাল, দুধ দিয়ে সেদ্ধ করে শুকিয়ে গেলে গরম অবস্থায় ব্লেন্ড করে নিতে হবে।
(২) কড়াইতে ঘি দিয়ে ডাল বাটা দিয়ে কিছুক্ষণ নেড়ে চিনি এবং গুঁড়ো দুধ দিয়ে ভালো ভাবে নাড়তে হবে। এলাচ, গুঁড়ো দিতে হবে।
(৩) হালুয়া তাল বেঁধে উঠলে কিসমিস, গোলাপ পানি দিয়ে কিছুক্ষণ নেড়ে-চেড়ে চুলা থেকে নামিয়ে বরফি করতে চাইলে বড় পেলেটে পেস্তা বাদাম কুচি অথবা কিসমিস ছিটিয়ে গরম হালুয়া ঢেলে সমান করতে হবে।
(৪) ঠান্ডা হলে ছাঁচে বসিয়ে বিভিন্ন নকশা করে পরিবেশন করুন মজাদার হালুয়া।
(৫) হালুয়া কে আরো মজাদার করতে চাইলে ১ কাপ মাওয়া এবং ফ্রেশ ক্রিম ১ টা সাথে দিতে পারেন।

https://fbcdn-sphotos-h-a.akamaihd.net/hphotos-ak-xpf1/t1.0-9/10366133_482215938579054_3456622033186492147_n.jpg

৫/ছানা হালুয়া

উপকরণ:
১) ছানা ২ কাপ,
২) এলাচ দানা গুঁড়ো পৌনে ১ চা চামচ,
৩) চিনি ১ কাপ,
৪) ঘি আধা কাপ,
৫) গুঁড়ো দুধ ১ কাপ,
৬) ময়দা ১/৪ কাপ,
৭) পেস্তা বাদাম ও কিসমিস ডেকোরেশনের জন্য।

প্রণালী :

(১) প্যানে ঘি দিয়ে ময়দা দিয়ে কিছুক্ষণ ভাজুন।
(২) ময়দা ভাজা হলে আস্তে আস্তে সব দিয়ে দিন। ঘন ঘন নাড়তে থাকুন যাতে লেগে না যায়।
(৩) চিনির পানি শুকিয়ে ঘি হালুয়ার উপরে উঠে আসলে নামিয়ে নিন। পরিবেশন করুন গরম গরম।


৬/ গাজরের মনোহর হালুয়া

উপকরণঃ

১) গাজর -৫০০ গ্রাম
২) দুধ – ১ লিটার
৩) চিনি – ৪ টেঃ চামচ
৪) কনডেন্সড মিল্ক – ১/২ টিন
৫) ঘি – ১/৩ কাপ
৬) পেস্তা বাদাম ও লবঙ্গ – প্রয়োজনমত (সাজানোর জন্য)

প্রনালীঃ

(১) গাজর টুকরো করে ১ লিটার দুধে সিদ্ধ করুন।
(২) গাজর সিদ্ধ হওয়ার পর দুধ শুকিয়ে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে ব্লেন্ডারে কিংবা পরিষ্কার শিল-পাটায় মিহি করে বেটে নিন।
(৩) এবার একটি কড়াইতে মাঝারী আঁচে ঘি গরম হতে দিন। ঘি গরম হলে গাজর, কনডেন্সড মিল্ক, চিনি মিশিয়ে ঘন ঘন নাড়তে থাকুন।
(৪) হালুয়ার পানি ভাব শুকিয়ে উপরে ঘি ভেসে উঠলে চুলা থেকে নামিয়ে ঠাণ্ডা করে নিন। এবার ছোট ছোট গোল বলের মত তৈরি করে মাঝে আঙুল দিয়ে একটু দাবিয়ে দিন। ছবির মতো করে লবঙ্গ ও বাদাম দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

**কনডেন্সড মিল্ক এর পরিবর্তে গুঁড়া দুধ কিংবা ১ কাপ ঘন দুধ ব্যবহার করা যাবে। সেই ক্ষেত্রে চিনির পরিমান আপনার স্বাদ মতো বাড়িয়ে দিবেন।


৭/ছানা গাজরের হালুয়া

উপকরণ :
১) গ্রেট করা গাজর ১ কাপ,
২) ছানা ১ কাপ,
৩) কনডেন্স মিল্ক ১ কাপ,
৪) চিনি আধা কাপ,
৫) কিশমিশ ১ টেবিল চামচ,
৬) রোস্টেড কাজু বাদাম গুঁড়া আধা কাপ,
৭) এলাচ গুঁড়া আধা চা চামচ,
৮) জাফরান ভেজানো পানি ১ টেবিল চামচ,
৯) গুঁড়া দুধ ১ কাপ,
১০) ঘি ১ কাপ,
১১) লিকুইড দুধ ১ কাপ।

প্রণালি:
(১) গ্রেট করা গাজর ১ কাপ দুধ দিয়ে সিদ্ধ করে নিন।
(২) এবার প্যানে ঘি দিয়ে গ্রেট করা গাজর দিন। এলাচ গুঁড়া ও কিশমিশ দিয়ে নাড়ূন, যেন পুড়ে না যায়। (৩) এবার এতে ছানা যোগ করুন। বাকি সব উপকরণ দিয়ে নাড়তে থাকুন। আঠালো হয়ে এলে একটি ডিশে ঘি মাখিয়ে মিশ্রণটি ঢেলে দিন।
(৪) ঠাণ্ডা হলে ইচ্ছামতো সাজিয়ে বা কেটে পরিবেশন করুন।

https://fbcdn-sphotos-a-a.akamaihd.net/hphotos-ak-xpf1/t1.0-9/1982083_482215958579052_696994799415562013_n.jpg

৮/ মজাদার চকলেট হালুয়া

উপকরণ :
১) সুজি আধা কাপ,
২) বেসন আধা কাপ,
৩) চিনি এক কাপ,
৪) ঘি আধা কাপ,
৫) কোকো পাউডার ২ টেবিল চামচ
৬) চকলেট গলানো ( ৪ স্কয়ার)
৭) চকলেট সিরাপ ২ টেবিল চামচ
৮) দারচিনি গুঁড়ো সামান্য
৯) ডিম ৩টা
১০) পানি ২ কাপ।
১১) বাদাম (সাজানোর জন্য)

প্রণালি:

(১) ডিম, কোকো পাউডার, গলানো চকলেট, চকলেট সিরাপ, চিনি ও পানি এক সঙ্গে ব্লেন্ড করুন।
কড়াইয়ে ঘি ঢেলে গরম করে সুজি, ঢালুন।
(২) সুজি ভাজা হয়ে গেলে বেসন দিয়ে নাড়তে থাকুন। ভালো করে ভেজে নিন।
(৩) এরপর ব্লেন্ড করা মিশ্রণ ঢেলে দিন। ক্রমাগত নাড়তে থাকুন।
হালুয়ার পানি শুকিয়ে তেল ওপরে ভেসে উঠলে দারচিনি গুড়া মিশিয়ে চুলা থেকে নামান।
(৪) একটি পাত্রে ঘি মেখে হালুয়া বসিয়ে দিন। ঠাণ্ডা হলে বরফির আকৃতিতে কেটে উপরে বাদাম কুচি দিয়ে সাজিয়ে দিন।
পরিবেশন করুন করুন মজাদার চকলেটের হালুয়া।

https://scontent-b-pao.xx.fbcdn.net/hphotos-xpf1/t1.0-9/10378911_482218985245416_7149995184400366256_n.jpg

৯/ডিমের হালুয়া

উপকরণ :
১) ডিম ৬টি,
২) দুধ ১ লিটার,
৩) কনডেন্সড মিল্ক আধা কৌটা,
৪) চিজনি আধা কাপ বা স্বাদ অনুযায়ী,
৫) এলাচ গুঁড়া ৪/৫টি,
৬) দারুচিনি ৩ টুকরো,
৭) কিশমিশ ১ টেবিল চামচ,
৮) গোলাপজল ১ টেবিল চামচ,
৯) ঘি ১ কাপ,
১০) পেস্তা বাদাম কুচি ১ টেবিল চামচ।

প্রণালি :
(১) দুধ জ্বাল দিয়ে ঘন করে ঠাণ্ডা করুন। ডিম ফেটিয়ে নিন।
(২) এবার সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। প্যানে ঘি দিয়ে সব উপকরণ ঢেলে নাড়তে থাকুন।
(৩) হয়ে গেলে নামিয়ে নিন এবং পরিবেশন করুন।

https://fbcdn-sphotos-g-a.akamaihd.net/hphotos-ak-xpf1/t1.0-9/10412033_482215995245715_6935873109906828358_n.jpg


১০/নেশেস্তার হালুয়া

উপকরণ :
১) সুজি ২৫০ গ্রাম,
২) ঘি বা বাটার অয়েল দেড় কাপ,
৩) চিনি তিন কাপ,
৪) দারচিনির গুঁড়া সিকি চা-চামচ,
৫) এলাচির গুঁড়া আধা চা-চামচ,
৬) ফুড কালার পছন্দমতো,
৭) গোলাপজল ১ টেবিল চামচ,
৮) পেস্তা কুচি ২ টেবিল চামচ,
৯) তবক ইচ্ছামতো।

প্রণালি :
(১) সুজি ৩ কাপ পানিতে ৮ থেকে ১০ ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখতে হবে। সুজি হাত দিয়ে কচলে মাড় বের করে নিতে হবে। এভাবে কয়েকবার কচলে মাড় বের করে নিতে হবে। পাতলা কাপড়ে মাড় কয়েকবার ছেঁকে নিয়ে চুলায় দিয়ে নাড়তে হবে।
(২) এ সময় ফুডকালার ও চিনি দিতে হবে। ঘন হয়ে এলে দারচিনির গুঁড়া ও ঘি দিয়ে নাড়তে হবে। যখন হালুয়া কড়াইয়ের গা ছেড়ে আসবে, তখন ঘি-মাখা প্লেটে ঢেলে পেস্তা বাদাম ও তবক দিয়ে বরফি করে কেটে পরিবেশন করতে হবে।
https://fbcdn-sphotos-h-a.akamaihd.net/hphotos-ak-xpa1/t1.0-9/10339621_713532002025853_2625291743334502539_n.jpg


হালুয়া থাকবে আর রুটি থাকবে না! তা কি হয়!!!!! tongue_smile

রুমালি রোটি

উপকরণঃ
১) ময়দা ১কেজি
২) ডিম দুটি
৩) চিনি ৫০ গ্রাম
৪) গুড়োঁ দুধ দুই চা চামচ
৫) বেকিং পাউডার আধা চা চামচ
৬) লবণ এক চা চামচ
৭) ঘি ও তেল বেলার জন্য

প্রণালীঃ

১) তেল বাদে সব উপকরণ পরিমাণমত পানির সাথে একসঙ্গে মেখে রুটির ডোর মতো ডো করতে হবে।
এবার ডোটিকে দুই-তিন ঘণ্টা রেখে দিতে হবে।
২) এরপর রুটি বেলে হাত দিয়ে টেনে টেনে পাতলা বড় রুটি তৈরী করে নিতে হবে।
লোহার কড়াইয়ের উল্টো পিঠে রুটি সেঁকে নিতে হবে।
৩) সেঁকা হয়ে গেলে নামিয়ে ঘি ব্রাশ করে ভাঁজ করে রাখতে হবে।
৪) গরম গরম পরিবেশন করতে হবে।

https://fbcdn-sphotos-c-a.akamaihd.net/hphotos-ak-xpf1/t1.0-9/10390180_482215601912421_8319533076714177880_n.jpg



ডান পাশ এর সারি দেখা হয়েছে না!
এখন আমরা বাম পাশের সারিতে দেখি কি কি রাখা আছে!

১১/ পাকা আমের হালুয়া

উপকরণ:
পাকা আমের ক্বাথ বা পাল্প ১ কাপ,
চিনি আধা কাপ,
সুজি ৪ টেবিল চামচ,
ঘি আধা কাপ,
এলাচ গুঁড়া সামান্য,
ঘি ২ টেবিল চামচ,
মাওয়া ২ টেবিল চামচ,
বাদাম পছন্দমতো।

প্রণালি:
আমের সঙ্গে সুজি, এলাচ গুঁড়া মিশিয়ে নিতে হবে।
এই মিশ্রণ ঘিতে ভেজে মাওয়া ও চিনি দিতে হবে। এবার বাদাম দিতে হবে।
নামিয়ে পছন্দমতো সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

http://www.prothom-alo.com/contents/cache/images/400x0x1/uploads/media/2014/06/10/b27a17f39aa8a160d6fec8dec3194811-11.jpg

১২/জাম হালুয়া

উপকরণ:
জাম ১ কাপ,
পানি ১ কাপ,
কর্নফ্লাওয়ার ১ কাপ,
চিনি দেড় কাপ,
এলাচ গুঁড়া সামান্য,
বাদাম পছন্দমতো,
ঘি সিকি কাপ।


প্রণালি:
জাম পানিতে সেদ্ধ করে ছেঁকে নিতে হবে। জামের পানির সঙ্গে কর্নফ্লাওয়ার, চিনি, এলাচ গুঁড়া ও বাদাম মিশিয়ে ঘিতে ভেজে নিতে হবে৷ গরম অবস্থায় পাত্রে ঢেলে দিতে হবে। ঠান্ডা হলে কেটে পরিবেশন করতে হবে।

http://www.prothom-alo.com/contents/cache/images/400x0x1/uploads/media/2014/06/10/291d2996f12226cbedc7bcc759f480f2-12.jpg

১৩/ কমলার আফলাতুন

উপকরণ:
সুজি আধা কাপ,
ডিম তিনটা,
মাখন ১ টেবিল চামচ,
গুঁড়া দুধ ১ কাপ,
চিনি ১ কাপ,
কমলালেবুর খোসা কুচি ১ চা-চামচ,
কমলার রস ১ টেবিল চামচ,
বেকিং পাউডার আধা চা-চামচ,
ময়দা ১ চা-চামচ,
ঘি ১ টেবিল চামচ।

প্রণালি:
দুধ, ময়দা, সুজি একসঙ্গে মিশিয়ে নিতে হবে।
অন্য বাটিতে ডিম, চিনি, কমলার রস ও খোসা কুঁচি মেশাতে হবে।
এবার সব উপকরণ একসঙ্গে মেশাতে হবে, ডাইসে ঘি মেখে প্রিহিট করা ওভেনে ১৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপে ২০ মিনিট বেক করে নিতে হবে। নামিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

http://www.prothom-alo.com/contents/cache/images/350x0x1/uploads/media/2014/06/10/390a9d5d50134a44a59f4e099e829757-8.jpg

১৪/গাজরের লাড্ডু

উপকরণ:
গাজর ২ কাপ,
গুঁড়া দুধ ১ কাপ,
কোরানো নারকেল আধা কাপ,
এলাচ গুঁড়া আধা চা- চামচ,
চিনি এক কাপ,
ঘি আধা কাপ,
বাদাম কুঁচি আধা কাপ।

প্রণালি:
গাজর কুঁচি করে নিতে হবে। নারকেল ছাড়া বাকি সব উপকরণ চুলায় ঘিতে দিেয় ভেজে নিতে হবে।
গোল গোল লাড্ডুর আকার করে নারকেলে গড়িয়ে নিতে হবে।

https://fbcdn-sphotos-f-a.akamaihd.net/hphotos-ak-xap1/t1.0-9/10155552_683971591648561_5842561309968349846_n.jpg


১৫/কাঁচা আমের হালুয়া

উপকরণ :
১)কাঁচা আম ৪টি,
২) চিনি আড়াই কাপ,
৩) ঘি আধা কাপ,
৪) এলাচ গুঁড়া ৪টি,
৫) সবুজ ফুড কালার সামান্য,
৬) কিশমিশ ২ টেবিল চামচ।

প্রণালি :
(১) খোসাসহ আম সিদ্ধ করে নিন। আমের খোসা ছিলে ব্লেন্ড করে নিন।
(২) প্যানে ঘি দিয়ে এলাচ ও কিশমিশ দিন। আম দিয়ে কিছুক্ষণ ভাজুন। চিনি দিন। ভালো করে নাড়তে থাকুন, যেন লেগে না যায়।
(৩) যখন ঘন হয়ে আসবে তখন নামিয়ে নিন এবং ঠাণ্ডা হলে পরিবেশন করুন।

১৬/ কাজু বরফি

উপকরণঃ

১) কাজু বাদাম – দেড় কাপ
২) ঘন তরল দুধ – দেড় কাপ
৩) চিনি – ২৫০ গ্রাম বা স্বাদমত
৪) গোলাপ জল বা কেওড়া পানি – ১ চা চামচ
৫) এলাচ – ৩-৪ টি
৬) ঘি – আধা কাপ

প্রনালিঃ
(১) কাজু বাদাম ১ ঘণ্টা পানিতে ভিজিয়ে রেখে মিহি করে বেটে নিন ।
(২) এবার কড়াইতে ঘি গরম করে এলাচ দিয়ে এর মধ্যে কাজু বাদাম বাটা , চিনি ও দুধ দিয়ে খুব ভাল করে মেশান ।
(৩) গোলাপ জল দিয়ে দিন । মৃদু আঁচে ঘন ঘন নাড়তে থাকুন যতক্ষণ না পর্যন্ত হালুয়া জমাট বেঁধে যায় ।
(৪) হালুয়া জমাট বেঁধে কড়াইয়ের গা থেকে ছেড়ে আসলে ঘি মাখানো প্লেটে হালুয়া ঢেলে দিন ।
(৫) চামচ দিয়ে সমান করে হালুয়া ঠাণ্ডা হতে দিন ।
(৬) হালুয়া ঠাণ্ডা হলে বরফির আকারে কেটে উপরে রুপার তবক বা বাদাম দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন দারুন স্বাদের কাজু কাটলি ।

http://www.priyo.com/files/story/201306/kajukatli.jpg

১৭/ কাঁঠালের বিচির হালুয়া

উপকরণ :
১) কাঁঠালের বিচি ৫০০ গ্রাম,
২) কনডেন্সড মিল্ক আধা কৌটা,
৩) চিনি আধা কাপ,
৪) গুঁড়াদুধ আধা কাপ,
৫) কিশমিশ ২ টেবিল চামচ,
৬) পেস্তা বাদাম কুচি ২ টেবিল চামচ,
৭) এলাচ-দারুচিনি ৩/৪টি,
৮) ঘি আধা কাপ,
৯) জাফরান ভেজানো গোলাপজল পরিমাণমতো।

প্রণালি :
(১) কাঁঠালের বিচি সিদ্ধ করে বেটে নিন।
(২) প্যানে ঘি দিয়ে এলাচ, দারুচিনি ও কিশমিশ দিয়ে বাটা কাঁঠালের বিচি দিন। এবার এতে চিনি ও কনডেন্সড মিল্ক দিয়ে নাড়তে থাকুন। গুঁড়া দুধ ও বাদাম কুচি দিয়ে আবারও নাড়তে থাকুন, যাতে না লেগে যায়।
(৩) সবশেষে জাফরান ভেজানো গোলাপজল দিয়ে নামিয়ে ঠাণ্ডা করে পরিবেশন করুন।

১৮/ ময়দার হালুয়া

উপকরণ :
১) ময়দা ৫০০ গ্রাম,
২) ঘি ৫০০ গ্রাম,
৩) চিনি ৫০০ গ্রাম,
৪) মিল্ক পাউডার ২০০ গ্রাম,
৫) ফুড কালার ইচ্ছামতো,
৬) পেস্তা বাদাম কুচি আধা কাপ,
৭) গোলাপজল পরিমাণমতো।
৮) কিশমিশ আধা কাপ,
৯) ছানা আধা কাপ,
১০) খেজুর কুচি আধা কাপ।

প্রণালি :
(১) প্রথমে প্যানে ঘি ঢেলে ময়দা ভেজে নিন। এবার ময়দা তিন ভাগে ভাগ করে নিন।
(২) প্রথম ভাগ নিয়ে পরিমাণমতো পানি দিয়ে গুলিয়ে নিন। প্যানে সামান্য ঘি দিয়ে ময়দা দিন। ভালো করে নাড়তে থাকুন। পেস্তা বাদাম কুচি ও কিছু কিশমিশ মেশান। ঘন ও আঠালো হয়ে এলে মিল্ক পাউডার দিয়ে নামিয়ে একটি বাটিতে ঢেলে রাখুন।
(৩) দ্বিতীয় ভাগ ময়দা গুলিয়ে ফুড কালার মেশান। খেজুর কুচি মিশিয়ে প্রথম ভাগের মতো রান্না করুন এবং বাটিতে ঢেলে রাখুন।
(৪) তৃতীয় ভাগ ছানা মিশিয়ে আগের মতো রান্না করুন। এরপর তিনটি হালুয়া একসঙ্গে আলতো করে মেখে একটি বাক্সে ঢেলে শেপ করে কেটে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

১৯/ ছানার বরফি

উপকরণঃ

১) ছানা – ২ কাপ
২) এলাচ গুঁড়া – আধা চা চামচ
৩) ঘি – আধা কাপ
৪) গুঁড়া দুধ – ১ কাপ
৫) চিনি- স্বাদ মত (ডায়াবেটিস রোগীর জন্য চিনি একদম না দিলেও খেতে মজা হবে)
৬) সুজি – ৩ টেবিল চামচ
৭) পেস্তা ও কাজু বাদাম কুচি – ২ টেবিল চামচ
৮) কিসমিস – ১ টেবিল চামচ
৯) কেওড়ার পানি \ গোলাপ জল – ১ চা চামচ

প্রনালিঃ
(১) প্রথমে ১ কেজি দুধের ছানা তৈরি করে নিন ।
(২) এরপর একটি ননস্টিক কড়াইতে সব উপকরন একসাথে দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন ।
(৩) এবার চুলায় কড়াই বসিয়ে হালুয়া ঘন ঘন নাড়তে থাকুন , লক্ষ্য রাখবেন যেন কড়াইয়ের নিচে হালুয়া না লেগে যায় ।
(৪) হালুয়া যখন কড়াইয়ের গা ছেড়ে আসবে তখন কেওড়া পানি দিয়ে আর একটু নেড়ে নিন ।
(৫) একটা উঁচু পাত্রের চারদিকে ঘি মাখিয়ে রাখুন , আবার হালুয়া পাত্রে ঢেলে চামচ দিয়ে সমান করে দিন ।
(৬) ঠাণ্ডা হলে পছন্দ মতো আকারে কেটে উপরে বাদাম , কিসমিস দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার ছানার বরফি ।

http://www.priyo.com/files/story/201406/ScoffableCakes_Barfi_620.jpg

২০/ বাদামের হালুয়া

উপকরণ:
১) ভাজা চিনাবাদাম বাটা আধা কাপ,
২) মাওয়া ২ কাপ,
৩) কাজুবাদাম বাটা সিকি কাপ,
৪) ঘি ৪ টেবিল-চামচ,
৫) জায়ফল গুঁড়ো সিকি চা-চামচ,
৫) এলাচ গুঁড়ো আধা চা-চামচ,
৬) কাজুবাদাম কুচি আধা কাপ,
৭) কিশমিশ ২ টেবিল-চামচ।

প্রণালি:
(১) ঘি গরম করে সব বাদাম বাটা, জায়ফল গুঁড়ো, এলাচ গুঁড়ো দিয়ে কিছুক্ষণ ভুনে চিনি দিয়ে নাড়তে হবে এবং অর্ধেকটা মাওয়া গুঁড়ো দিতে হবে।
(২) হালুয়া কড়াইয়ের গা ছেড়ে এলে কিশমিশ, কাজুবাদাম কুচি দিয়ে চুলা থেকে নামিয়ে বাকি মাওয়া মিশিয়ে ঘি মাখানো ডিশে ঢেলে ঠান্ডা হলে পছন্দমতো কেটে পরিবেশন।

https://lh3.googleusercontent.com/-3CeEJa0sMQo/UcAMT-uiApI/AAAAAAAAA58/2nuYX1fg_uw/w660-h330-no/rupcare_badam+halua1.jpg

২১/ পেঁপের হালুয়া

উপকরণঃ
১) কাঁচা পেঁপে ৫০০ গ্রাম,
২) ঘি আধা কাপ,
৩) মাওয়া গুঁড়া ৪ টে· চামচ,
৪) চিনি ২৫০ গ্রাম,
৫) এলাচ গুঁড়া ১ চা চামচ,
৬) কিসমিস ১ টে· চামচ,
৭) আমন্ড বাদাম কুচি এক টেবিল চামচ, সবুজ রং সামান্য।

প্রণালীঃ
(১) পেঁপে খোসা ফেলে কুচিয়ে নিতে হবে। কুচানো পেঁপে সামান্য ভাপ দিয়ে নিন।
(২) এবার চুলায় কড়াইতে ঘি দিন। কুচানো পেঁপে দিয়ে ভাজতে হবে। চিনি, মাওয়া, রং, এলাচ গুঁড়া দিয়ে ভাজতে থাকুন।
(৩) হালুয়া ঘন হয়ে ঘি ওপরে উঠে এলে নামিয়ে নিন এবং কিসমিস ও বাদাম দিয়ে পরিবেশন করুন।

https://fbcdn-sphotos-d-a.akamaihd.net/hphotos-ak-xpa1/t1.0-9/10433267_482215838579064_4244321276305971743_n.jpg

২২/ পাউরুটির হালুয়া

উপকরণ:
১) গুঁড়ো দুধ ১ কাপ,
২) বাটার অয়েল আধা কাপ,
৩) পানি ২ কাপ,
৪) পেস্তা বাদাম এক টেবিল চামচ,
৫) পাউরুটি কিউব করে বাটা ২ কাপ,
৬) চিনি ১ কাপ,
৭) স্টাভারি রেড ১ চা চামচ,
৮) তবক ২ পিস,
৯) গোলাপজল ১ চা চামচ,
১০) এলাচ গুঁড়া হাফ চা চামচ,
১১) বাদাম কুচি ১ টেবিল চামচ।

প্রণালী :
(১) পাউরুটি কিউব করে কেটে বাটার অয়েল দিয়ে ভেজে নিন।
(২) অন্য পাত্রে ২ কাপ পানি ও চিনি দিয়ে জ্বাল দিন। সাথে স্টাভারি রেড কালার অবশ্যই দিতে হবে। এই সিরায় ভাজা রুটিগুলো দিয়ে অনবরত নাড়তে থাকুন।
(৩) ঘন হয়ে এলে ডিসে ঢেলে পেস্তাবাদাম দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন। পেস্তা বাদাম দেওয়ার আগে তবক দিন।

সাথে চালের নরম রুটি!!!

চালের নরম রুটি

উপকরণ:
১) আতপ চালের গুঁড়া ৪ কাপ,
২) ময়দা আধা কাপ,
৩) লবণ ১ চিমটি,
৪) চিনি ১ চা-চামচ (ইচ্ছা),
৫) ঘি ২ টেবিল-চামচ,
৬) পানি ৬ কাপ।

প্রণালি:
(১) সসপ্যানে লবণ ও পানি জ্বাল দিতে হবে। পানিতে বলক উঠলে চালের গুঁড়া দিয়ে জ্বাল কমিয়ে ঢাকনা দিয়ে পাঁচ মিনিট দমে রাখতে হবে।
(২) এরপর ভালোভাবে নেড়ে চুলা থেকে নামিয়ে কিছুটা গরম অবস্থায় ঘি দিয়ে মাখিয়ে কাই করে নিতে হবে।
(৩) ভেজা কাপড় দিয়ে ঢেকে রাখতে হবে কিছুক্ষণ। এবার ময়দা দিয়ে বেলে ভাজতে হবে।



রেসেপি ও ছবি নেট থেকে নেয়া!


জল'স কিচেন থেকে আমি জল আজ বিদায় নিচ্ছি!
আগামী পর্বে, আবারো এক গামলা রেসেপি নিয়ে হাজির হব!

Re: হালুয়ার দোকান!!!

খুব চমৎকার হালুয়ার সমাবেশ দেখা যাচ্ছে। যাক ভালোই হবে এবার তাহলে হালুয়া খেতে খেতে ফুটবলে লাথি মারা দেখব।
যারা ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা নিয়ে লাঠালাঠি করছে তাদের মত উতকৃষ্ট উপাদান থাকতে একটি নতুন হালুয়ার আইটেম কেন তৈরি হচ্ছে না? (ফাজিলরে আর্জেন্টলি হিডাইয়া হালুয়া বানাইয়ূম)

হে আল্লাহ, তুমি সকলের মঙ্গল কর; তোমার রহমতের আশ্রয়ে আশ্রিত কর..... আমীন
সঠিক পদ্ধতিতে ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করুন এবং আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটটিকে সুরক্ষিত রাখুন

কাজী আলী নূর'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি GPL v3 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: হালুয়ার দোকান!!!

হালুয়ার প্রেমে পইড়া গেলাম গো দিদিমণি  big_smile big_smile big_smile লে হালুয়া  big_smile

সব কিছু ত্যাগ করে একদিকে অগ্রসর হচ্ছি

লেখাটি CC by-nd 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: হালুয়ার দোকান!!!

নেশেস্তার হালুয়ার ছবিটা পছন্দ হইছে।
যদিও হালুয়া খুব একটা পছন্দ করিনা, কিন্তু যদি বেশি সাধাসাধি করেন তাইলে দুই একটা টুকরা খেতে পারি। tongue

You are the one who thinks that i didn't get the point, so do i think of you...what a coincidence!!

Re: হালুয়ার দোকান!!!

mizvibappa লিখেছেন:

হালুয়ার প্রেমে পইড়া গেলাম গো দিদিমণি  big_smile big_smile big_smile লে হালুয়া  big_smile

আহা লে হালুয়া বললে তো আর হালুয়া খাওয়া হবে না। হালুয়া খেতে হলে বলা চাই "দে হালুয়া" sick

হে আল্লাহ, তুমি সকলের মঙ্গল কর; তোমার রহমতের আশ্রয়ে আশ্রিত কর..... আমীন
সঠিক পদ্ধতিতে ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করুন এবং আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটটিকে সুরক্ষিত রাখুন

কাজী আলী নূর'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি GPL v3 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: হালুয়ার দোকান!!!

আমের হালুয়া বানানো গেলে একটা রেসিপি চাই। বাসায় আম্মা বুটের হালুয়া আর সুজির হালুয়া আজ রাতেই বানিয়ে ফেলেছে। ফ্রিজে রেখে দিয়েছে। কালকে গাজর কিংবা আমের হালুয়া বানাবে কিন্তু গাজর পাচ্ছি না। বাসায় আম ভর্তি। তাই একটা আমের রেসিপি চাই।

এই রকম দেখতে হতে হবে

http://www.shajgoj.com/wp-content/uploads/2013/06/mango-halwa3x-680x450.jpg

Re: হালুয়ার দোকান!!!

আগামীকাল হালুয়ার উৎসব । এখনি জিবে পানি চলে আসছে tongue

লেখাটি LGPL এর অধীনে প্রকাশিত

Re: হালুয়ার দোকান!!!

আমি তু ভেবেছিলুম আপনি আমাদের খাওয়ানোর ভুয়ে রান্নাবান্নাই ছেড়ে দিয়েছেন  tongue ওয়াও দেখে তো খুব ইয়াম্মি ইয়াম্মি লাগছে  tongue_smile  খেতে না কত মজা হবে  smile

অন্যের কাছ থেকে যে ব্যবহার প্রত্যশা করেন আগে নিজে সে আচরন করুন।

লেখাটি CC by-nc 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন Jol Kona (১৩-০৬-২০১৪ ১৭:৪৮)

Re: হালুয়ার দোকান!!!

পাকা আমের হালুয়া!  thinking thinking thinking কাচা আমের তো পাইছি! পাকা আমের........... confused

আচ্ছা ফিফার-২০১৪ এর ওপেনিং সেরেমনি দেখে আপনাকে খুঁজে দিতে চেষ্টা করব! বাউল ভাই!

দেখেন তো আউলা ভাই এতে হবে নাকি!  smile পোস্ট এডিট করে দিলাম tongue

১০

Re: হালুয়ার দোকান!!!

হালুয়া একটু আগে রান্না করা শেষ - হালুয়া খেতে খেতে খেলা দেখবো big_smile

লেখাটি LGPL এর অধীনে প্রকাশিত

১১

Re: হালুয়ার দোকান!!!

হালুয়াময় রেসিপি দেখে লোভ সামলানো দায়... ফিলিং লালায়িত

তাসনিম।মুন্নী

১২

Re: হালুয়ার দোকান!!!

আমার খুব পছন্দ হালুয়া , এবার শবে-ঈ-বারাত এর হালুয়া মিসাইছি খুব  sad ।  দেখি রেসিপি ট্রাই করে হালুয়া বানাইতে পারি কি না ।

[ না পারলে পার্সেল কইরেন ]  tongue_smile

নিবন্ধিতঃ১১/০৩/২০০৯ ,নিয়মিতঃ১০/০৩/২০১১, প্রজন্মনুরাগীঃ১৯/০৫/২০১১ ,প্রজন্মাসক্তঃ২৬/০৯/২০১১,
পাঁড়ফোরামিকঃ২২/০৩/২০১২, প্রজন্ম গুরুঃ০৯/০৪/২০১২ ,পাঁড়-প্রাজন্মিকঃ২৭/০৮/২০১২,প্রজন্মাচার্যঃ০৪/০৩/২০১৪।
প্রেম দাও ,নাইলে বিষ দাও

১৩

Re: হালুয়ার দোকান!!!

Jol Kona লিখেছেন:

পাকা আমের হালুয়া!  thinking thinking thinking কাচা আমের তো পাইছি! পাকা আমের........... confused

আচ্ছা ফিফার-২০১৪ এর ওপেনিং সেরেমনি দেখে আপনাকে খুঁজে দিতে চেষ্টা করব! বাউল ভাই!

আমি আপনার রেসিপি দেখে পাকা আমের হালুয়া বানিয়েছিলাম। এত মজা। পুরা মনে হচ্ছিলো আইসক্রীম খাচ্ছি। ইয়াম ইয়াম।  thumbs_up

১৪ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন Jol Kona (১৭-০৬-২০১৪ ২২:৫৯)

Re: হালুয়ার দোকান!!!

Jemsbond লিখেছেন:

আমার খুব পছন্দ হালুয়া , এবার শবে-ঈ-বারাত এর হালুয়া মিসাইছি খুব  sad ।  দেখি রেসিপি ট্রাই করে হালুয়া বানাইতে পারি কি না ।

[ না পারলে পার্সেল কইরেন ]  tongue_smile

বানাইলে ছবি দিবেন মাস্ট! প্রজন্ম ফোরামের সৌভাগ্য হবে কেউ যদি সত্যি সত্যি এই রেসেপি গুলো ট্রাই করে দেখে!  hehe


বাউল ভাই লিখেছেন:

আমি আপনার রেসিপি দেখে পাকা আমের হালুয়া বানিয়েছিলাম। এত মজা। পুরা মনে হচ্ছিলো আইসক্রীম খাচ্ছি। ইয়াম ইয়াম।  thumbs_up

ছবি দেন ছবি! মজা করে একা একা খেয়ে ফেললে তো হবে না!  tongue_smile tongue_smile


মুন্নিপু লিখেছেন:

হালুয়াময় রেসিপি দেখে লোভ সামলানো দায়... ফিলিং লালায়িত

tongue_smile cool

কেউ ট্রাই করে থাকলে প্লিজ আপনারা ছবি দেবেন একটা!  O:)

১৫

Re: হালুয়ার দোকান!!!

Jol Kona লিখেছেন:

বাউল ভাই লিখেছেন:

আমি আপনার রেসিপি দেখে পাকা আমের হালুয়া বানিয়েছিলাম। এত মজা। পুরা মনে হচ্ছিলো আইসক্রীম খাচ্ছি। ইয়াম ইয়াম।  thumbs_up

ছবি দেন ছবি! মজা করে একা একা খেয়ে ফেললে তো হবে না!  tongue_smile tongue_smile

আসল খাবারতো খেয়ে সাবাড় করে ফেলেছি।

ধরেন ছবি খান।

http://img0.uploadhouse.com/fileuploads/19539/19539250e33656d8e1206da25a2a21210279e2e3.jpg

১৬

Re: হালুয়ার দোকান!!!

সবগুলো কি বাসায় বানান হয়েছিল!!!!!

এক টুনিতে টুনটুনালো সাত রানির নাক কাঁটালো