টপিকঃ বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

রান্না করা শাকের ছবি দিতে পারলাম না। রান্না করে চেটেপুটে খেয়ে ফেলেছি।  tongue

http://upload.wikimedia.org/wikipedia/commons/b/b7/Melganzenvoet_bloeiwijze_Chenopodium_album.jpg
ছবি উইকিপিডিয়া থেকে নেয়া

বৈথা শাক বা বথুয়া শাক মূলত শীতকালে পাওয়া যায়। অন্য জায়গায় পাওয়া যায় কিনা জানি না, তবে উত্তরবঙ্গের দিকে পাওয়া যায়। ধানের ক্ষেত, গমের ক্ষেত ইত্যাদি জায়গায় বেশি জন্মে আগাছা হিসেবে। অনেকেই শাকটির নাম জানে না। ইনফ্যাক্ট দিন চারেক আগে আমিও জানতাম না। সকালবেলা বাজারে একজন নিয়ে আসলেন- তখনও শাকে মাটি লেগে আছে, লেগে আছে কুয়াশার পানি। মানে একদম টাটকা। অন্যদের দেখাদেখি আমিও কিনে ফেললাম আধা কেজি। কীভাবে রান্না করতে হয় তাও জেনে নিলাম বিক্রেতার কাছ থেকে। সেই রেসিপি এখন আপনাদের জন্য।

এই শাক রান্না করতে যা যা উপকরণ লাগবে (আন্দাজ ছয় জনের জন্য)-

১. বৈথা শাক - আধা কেজি
২. পেঁয়াজ কুচি - বড় পেঁয়াজ হলে একটা, ছোট হলে দুটো
৩. রসুন - মাঝারি চার কোয়া, কুঁচি কুঁচি করে কাটা
৪. কাঁচামরিচ - চারটা
৫. শুকনা মরিচ - পাঁচটা
৬. কালোজিরা - আধা চা-চামচ
৭. গুড়ো মরিচ - আধা চা-চামচ
৮. হলুদ - আধা চা-চামচ
৯. লবণ - পরিমাণমতো
১০. তেল - এক কাপের তিন ভাগের এক ভাগ

প্রণালী
১. শাক ভালো করে বেছে ধুয়ে ফেলুন। অনেকে শুধু শাকের পাতা রান্না করেন, অনেকে ছোটখাট শাখা-প্রশাখাগুলোও রান্না করেন। আমি শাখাপ্রশাখাসহ রান্না করেছি। এই গাছের সবকিছুই পুষ্টিকর। সুতরাং একেবারে বাধ্য না হলে শাখাপ্রশাখাগুলো না ফেলাই ভালো।

২. প্রেসার কুকারে শাক সিদ্ধ করতে দিন। সেদ্ধ করার সময়ই লবণ পরিমাণমতো দিয়ে দিবেন। শাখাপ্রশাখাসহ রান্না করলে তিনটি সিটি দিবেন, আর শুধু পাতা রান্না করলে দুটো সিটি।

৩. একটি কড়াইয়ে তেল ভালোভাবে গরম করুন। তারপর একে একে পেঁয়াজ কুঁচি, রসুন কুঁচি, শুকনো মরিচ, কাঁচা মরিচ, কালোজিরা দিয়ে নাড়তে থাকুন। হালকা একটু ঝাল গন্ধ বেরুলে সেদ্ধ করা শাক পানি ঝরিয়ে কড়াইয়ে দিয়ে নাড়তে থাকুন।

৪. ভালোভাবে নাড়া হয়ে গেলে কড়াইটি ঢেকে দিন। রান্না করতে হবে অল্প আঁচে। মিনিট পাঁচেক পর এতে গুড়ো মরিচ ও হলুদ দিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে দিন।

৫. আঁচ আরেকটু কমিয়ে দশ মিনিট রান্না করুন। আবার ভালোভাবে নেড়ে দিন।

৬. ফাইন্যালি আবার ঢাকনা দিয়ে পাঁচ মিনিট রান্না করুন।

ব্যাস, হয়ে গেল বথুয়া শাক রান্না। খেয়ে দেখুন, দারুণ মজা। শাকটি হালকা তেতো, কিন্তু একটু অতিরিক্ত হলুদ ও মরিচ দেয়ার কারণে আশা করি আর তেতো লাগবে না। smile

আমার সকল টপিক

কোনো কিছু বলার নেই আজ আর...

Re: বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

ছবি দেখে তো ভেবেছিলাম কাচা খেয়ে তারপর লবন মরিচ আলাদা করে খেয়ে লাফাতে বলবেন tongue_smile hehe

এটা রান্না করে খাওয়া হয় নাই তবে ভর্তা করা হয়েছে তখন একটু এই সামান্য একটু খেয়েছি!  worried
আর তিতা জিনিশ কোন কালেই আমার মুখে উঠে নাই!!  mad
কখনো না উহু!!! তবে আম্মার ফেভারিট  roll

Re: বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

বথুয়া শাক বেগুন ও মূলা দিয়ে রান্না করলে খুব ভালো লাগে। বথুয়া শাককে অাণ্ডার-এস্টিমেট করলে ভুল করবেন। পাশ্চাত্যেও এই শাক খাওয়া হয়, ইংরেজীতে এই শাকের নাম "Goosefoots" অর্থাৎ হাঁসের পা" যেহেতু, পাতাগুলো হাঁসের পায়ের মত দেখতে। বৈজ্ঞানিক নাম Chenopodium album  বথুয়া শাক,পালং শাকের অাত্মীয়। এই শাকের কৃমিনাশক গুণ অাছে।

Life IS Neither TEMPEST, NOR A midsummer NIGHT'S DREAM, BUT A COMEDY OF Errors,
ENJOY AS U LIKE IT

Re: বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

Jol Kona লিখেছেন:

আর তিতা জিনিশ কোন কালেই আমার মুখে উঠে নাই!!  mad

তিতা না তো! সামান্য একটু তিতা ভাব আছে, কিন্তু হলুদ সামান্য একটু বেশি দিলে সেটাও চলে যায়!

অরিহন্ত লিখেছেন:

এই শাকের কৃমিনাশক গুণ অাছে।

এই গাছ নাকি ঔষধি গাছ।

আমার সকল টপিক

কোনো কিছু বলার নেই আজ আর...

Re: বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

ছোটবেলা শীতকালে যখন খালার শ্বশুড়বাড়ি গফরগাঁও বেড়াতে যেতাম তখন এটা খাওয়া হত। নিজে ক্ষেত থেকে তুলেও আনতাম। খেতে মজাই লাগে। রেসিপি দেখে তো এখন আবার খেতে ইচ্ছে হচ্ছে...  tongue_smile

আলহামদুলিল্লাহ!

Re: বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

আরে এটা তো আমাদের এলাকার শাক ! হ্যাঁ ঠিক বলেছেন গৌতম দা , এই শাক গম আর আলুক্ষেতে আগাছা হয়েই জন্মায় ! আমাদের এলাকায় এই শাক এত পরিমানেই জন্মায় যে মানুষ এগুলো গরু-ছাগল দিয়ে খাইয়ে ফেলে !

এই শাক রান্নার করার একটা বিশেষ কৌশল আছে , তিতা লাগবেনা ! হে হে !
১) শাকের শুধুমাত্র ওপরের কচি নরম অংশ রান্নার জন্য নিতে হবে !
২) সেদ্ধ করার পর শাক থেকে অতিরিক্ত পানি ফেলে দিতে হবে !

জানি আছো হাত-ছোঁয়া নাগালে
তবুও কী দুর্লঙ্ঘ দূরে!

লেখাটি CC by-nc-nd 3. এর অধীনে প্রকাশিত

Re: বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

আমি অবশ্য এতো বাছাবাছিতে না গিয়ে কেবল দুর্বাঘাস, লতাপাতা ইত্যাদি বেছে পুরোটাই রান্না করে ফেলেছি। এগুলো করতেই ৪০ মিনিট চলে গেছে, পুরোটা বাছতে গেলে দিন চলে যেত।

সেদ্ধ করার পর অতিরিক্ত পানিটা তো ফেলে দিতেই হয়। এটা কি অন্য কোনো পারপাসে ব্যবহার করা যায়? এমনিতে অবশ্য শাকের পানি আমি অন্য তরকারিতে দিয়ে দিই, কিন্তু এই পানিটা তিতা বলে ফেলে দিয়েছিলাম। যদিও জানি, এতে অনেকখানি ভিটামিন, খনিজ পদার্থ চলে গেল।

আমার সকল টপিক

কোনো কিছু বলার নেই আজ আর...

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন Jol Kona (২৫-১২-২০১৩ ২৩:২৫)

Re: বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

আচ্ছা এইখানের মনে হয় খুঁজলে একটা রেসেপি পাব!! তিতা বিশেজ্ঞদের ভীড় দেখতেছি!!  waiting

আমাকে করলা রান্নার রেসেপি কেউ দিতে পারবেন, যেটা............ যেটা ( বোল্ড করে দিসি কিন্তু খেয়াল করে!!!)  isee রান্নার পর তিতা লাগবে না! -_-
এটা নিয়া আমাদের মা-মেয়ে মধ্যে গত ১২-১৩ বছর যাবত বহু চিল্লাচিল্লি প্লেট ভাঙ্গাভাঙ্গি হইসে! dontsee
কিন্তু তার পরো খাওয়াইতে ব্যর্থ হইসে!!!  hmm

কিন্তু সবাই দেখি কি মজা করে করে খায়!! আর আমি  brokenheart চাইয়া চাইয়া দেখি আর ভাবি কি মজাটা আছে এর মধ্যে!  worried

কারো একজনের বাসায় খেয়েছিলাম। চ্যালেঞ্জ করে খাওয়াই ছিল সেই ভাবী আমাকে।  তিতা হবেন না। হয় নাই তিতা  worried! কিন্তু কি যে জাদু করে সেই রেসেপি বানাইসে! সেটা জানা হইল না!!  cry
এখন কারো জানা থাকলে দেন! বাসার করলা আছে একটু ট্রাই করে দেখি!  roll

Re: বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

করল্লার তিতা সম্পূর্ণভাবে দূর করার উপায় আছে কিনা জানা নেই, তবে কমানো যায়। সেক্ষেত্রে করল্লা ভাজি করার আগে হালকা সেদ্ধ করে নিতে হবে। সেদ্ধ করা পানি ফেলে করল্লা ভাজি করতে হবে ঘি দিয়ে আর হলুদ স্বাভাবিকের তুলনায় একটু বেশি দিবেন। করল্লার তিতা ভাব অন্তত ৭০ ভাগ কমে যাবে।

আমার সকল টপিক

কোনো কিছু বলার নেই আজ আর...

১০

Re: বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

জামিল মণ্ডল লিখেছেন:

২) সেদ্ধ করার পর শাক থেকে অতিরিক্ত পানি ফেলে দিতে হবে !

তাহলে আর থাকবে কি? পুষ্টির কথা বলছি।

"সংকোচেরও বিহ্বলতা নিজেরই অপমান। সংকটেরও কল্পনাতে হয়ও না ম্রিয়মাণ।
মুক্ত কর ভয়। আপন মাঝে শক্তি ধর, নিজেরে কর জয়॥"

১১

Re: বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

গৌতম লিখেছেন:

করল্লার তিতা সম্পূর্ণভাবে দূর করার উপায় আছে কিনা জানা নেই, তবে কমানো যায়। সেক্ষেত্রে করল্লা ভাজি করার আগে হালকা সেদ্ধ করে নিতে হবে। সেদ্ধ করা পানি ফেলে করল্লা ভাজি করতে হবে ঘি দিয়ে আর হলুদ স্বাভাবিকের তুলনায় একটু বেশি দিবেন। করল্লার তিতা ভাব অন্তত ৭০ ভাগ কমে যাবে।

বাকি ৩০ ভাগ কমানোর উপায় বের করে দেন! roll roll
আমার পুষ্টি গুন লাগবে না! কিন্তু রান্নার পর তিতা হওয়া যাবে না!  cry

আর কি কেউ নাই এইখানে!! মুন্নিপু কই তুমি!!! এই দিকে আস তো একটু!  sad

১২

Re: বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

খেতেই যদি না পারলাম, তাহলে পুষ্টি দিয়ে করবোটা কী?  tongue

আমার সকল টপিক

কোনো কিছু বলার নেই আজ আর...

১৩

Re: বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

এটাকে বতুয়া শাকও বলে। অনেকদিন পর এর চেহারা মুবারাকটা আপনার সুবাদে দেখা হল, গৌতমদা। স্বাদ প্রায় ভুলতে বসেছি। তা অরিহন্ত বলছে পাশ্চাত্যে নাকি পাওয়া যায়? খোঁজ করতে হবে তো! আপনার বর্ণনা দেখে মনে হলো, টুকটাক রান্নার অভ্যাস আছে। বেশ, বেশ!

@জল, করলার তিতাই তো আসল। তিতা না হলে কী আশায় খাবে, বুঝলাম না!  surprised আমি তো এখানেও পারলে শুধু করলা ভাজি দিয়েই ভাত খেয়ে ফেলি। অন্য কিছু লাগে না!  smile

কিছু বাধা অ-পেরোনোই থাক
তৃষ্ণা হয়ে থাক কান্না-গভীর ঘুমে মাখা।

উদাসীন'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

১৪

Re: বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

উদাসীন লিখেছেন:

এটাকে বতুয়া শাকও বলে। অনেকদিন পর এর চেহারা মুবারাকটা আপনার সুবাদে দেখা হল, গৌতমদা। স্বাদ প্রায় ভুলতে বসেছি। তা অরিহন্ত বলছে পাশ্চাত্যে নাকি পাওয়া যায়? খোঁজ করতে হবে তো! আপনার বর্ণনা দেখে মনে হলো, টুকটাক রান্নার অভ্যাস আছে। বেশ, বেশ!

@জল, করলার তিতাই তো আসল। তিতা না হলে কী আশায় খাবে, বুঝলাম না!  surprised আমি তো এখানেও পারলে শুধু করলা ভাজি দিয়েই ভাত খেয়ে ফেলি। অন্য কিছু লাগে না!  smile


নো করলা! উইথ তিতা!!!  sick

love করলা উইথ আউট তিতা!!!

১৫

Re: বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

উদাসীন লিখেছেন:

আপনার বর্ণনা দেখে মনে হলো, টুকটাক রান্নার অভ্যাস আছে। বেশ, বেশ!

মাঝেমধ্যেই রান্না করি। বউ আমার চেয়ে বেশি ব্যস্ত, ফলে ও এখন আর আগের মতো রান্না করার সময় পায় না। ওর চাকরির চেয়ে আমার চাকরিতে পরিশ্রম কম, সুতরাং ঠেকায কাজ চালাই আর কি!

আমার সকল টপিক

কোনো কিছু বলার নেই আজ আর...

১৬

Re: বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

আমার প্রিয় শাক গুলোর মধ্যে অন্যতম এ বউত্তা শাক। টাকি মাছ সহযোগে রান্না করলে সেইরাম স্বাদের হয়।

১৭

Re: বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

অনেকদিন পর দেখলাম । অনেক নস্টালজিক সৃতি  dream dream । বড় আপু আর কাজিন রা মিলে গ্রামে ঈদে ছুটিতে গেলে এসব শাঁক তুলে নিয়ে আসতো । আমি ও যেতাম লাফাতে লাফাতে । কালের গর্ভে এই শাঁক আদৌ আছে কি না জানা নাই । তবে এই শাকের স্বাদ তিতা হলে ও খেতে ভারী মজা ।

নিবন্ধিতঃ১১/০৩/২০০৯ ,নিয়মিতঃ১০/০৩/২০১১, প্রজন্মনুরাগীঃ১৯/০৫/২০১১ ,প্রজন্মাসক্তঃ২৬/০৯/২০১১,
পাঁড়ফোরামিকঃ২২/০৩/২০১২, প্রজন্ম গুরুঃ০৯/০৪/২০১২ ,পাঁড়-প্রাজন্মিকঃ২৭/০৮/২০১২,প্রজন্মাচার্যঃ০৪/০৩/২০১৪।
প্রেম দাও ,নাইলে বিষ দাও

১৮

Re: বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

বউত্তা শাক আমরা সব সময়ই খাই থবে উপকরণ আরো কম দেই । ধন্যবাদ সুন্দর পোষ্টের জন্য smile

জাযাল্লাহু আন্না মুহাম্মাদান মাহুয়া আহলুহু......
এই মেঘ এই রোদ্দুর

১৯

Re: বৈথা (বথুয়া) শাক রান্না

অনেকেই বলছেন এই শাক তিতা। কিন্তু আমার কাছে একে খুব তিতা মনে হয় নাই, হালকা তিতা মনে হয়েছে। কিছু বাড়তি মশলার কারণে তিতা ভাবটা রান্না করার পর একেবারেই কেটে গিয়েছিল।

আমার সকল টপিক

কোনো কিছু বলার নেই আজ আর...