সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন Jol Kona (১৯-১১-২০১৩ ১৪:২৪)

টপিকঃ খোলা পিঠা!

বাপবা!! সবাই যেমন রান্না ঘরে দৌড়দৌড়ি লাগিয়েছে কই যাই আমি!  ghusi
আমার লিখা পড়তে পড়তে কারো রেসেপি পড়ার সময় হবে কিনা আমার সন্দেহ আছে  hehe

যাক! বিকাল আম্মুকে বলছিলাম  শীততো চলে এল! "ছাইয়া" পিঠা বানাবা!  ghusi
এই পিঠার নাম "ছাইয়া পিঠা" কেন এটা আমি জানি না! এটা দুই রকমের হয়! একটা নারিকেল-গুড়-চালের গুড়ি দিয়ে তৈরি হয়, সেটা দেখতে বাদামী রঙের হয়  আর একটা শুধুই চালের গুড়ি- নারিকেল দিয়ে তৈরি হয় সাদা রঙের। আকৃতি হয় গোল করে বানিয়ে দুইদিকে লাটিমের মত চোখা করে দেয়া হয়!

শীতকাল আসলেই আমার চিতই পিঠা, ভাঁপা আর এই "ছাইয়া" পিঠা খাবার আবদার শুরু হয়ে যায়! তো আম্মুর কানের কাছে ঘ্যান ঘ্যান করতে করতেই আম্মা বলল, "কোনায় গিয়ে বসে থাক। কানের সামনে প্যান প্যান করবি না  shame তোদের বাপ-মেয়ে প্যান প্যান খেন খেন  শুনতে শুনতে শেষ হইয়া যাইতেছি; আমারে পিঠা বানায় খাইয়া ফেল ...... "
আমি  roll

কি আর করার মুড়ি এক মুঠা হাতে নিয়া সারা ঘরে হাঁটতে হাঁটতে চিবাইলাম। তারপর রুমে এসে ল্যাপি নিয়া খুটখুট খুটখুট করতে লাগলাম।

একটু পরে আম্মা এসে আমাকে খোলা পিঠা বানায় দিয়া গেল! সাথে মধু আর একটু নারিকেল!  love 
ওই পিঠা না হোক, এই পিঠা; চলবে!  big_smile
তবে এটাকে কেন "বন্ধ পিঠা" না বলে "খোলা পিঠা" বলে তা আমার জানা নাই!  thinking

এটা দেখে, লাফায় লাফায় গেলাম রান্না ঘরে! দেখলাম আব্বুর জন্য বানাবে এখন আম্মু। তো আমি ডালের চামুচ নিয়া দাঁড়ায় আম্মুকে বললাম "আমি আমি!" মেয়ের এত্ত উৎসাহ দেখে মা না করে কেমনে  big_smile
দিলাম গরম গরম কড়াইতে এক চামুচ পিঠার মিশ্রণ ঢেলে, এক হাত দিয়ে কোন রকমে নাড়ালাম কড়াই!! hmm কি হইল এটা কই গোল গোল হবে, তা না  আমারটা হইসে অস্ট্রেলিয়ার ম্যাপ  mad  hairpull

আমি আম্মুর দিকে তাকাইলাম; আম্মা বলে mad ......... এত ঢঙ্গ করে নাড়াইলেতো এমন হবেই। roll  আমি বললাম দেখায় দেও একটা! পরে আম্মা একটা দেখায় দিল। ব্যাস, আমি এইবার আমার ইচ্ছা মত বানাইতে লাগলাম  dancing
কোনটা ছোট , কোনটা বড়!  cool ; কিন্তু সব গোল গোল পারফেক্ট  dancing

এর আগেও আমি মিশ্রণ করে দিয়েছি কিন্তু কড়াইতে দিয়ে রেডি করে খাবার উপযুক্ত করি নাই। কারন আমার কোন বারই ঠিকমত হয় নাই। হয় পুড়ে গেছে , নাইলে ভেতরে কাঁচা রয়ে গেছে, নাইলে ভেঙ্গে টুকরা টুকরা হয়ে গেছে! আজ হইল ঠিক মত! খুব সোজা একটা রেসেপি! বলেই দি কি ভাবে করতে হবে; নাকি?

আচ্ছা যা যা লাগবেঃ

পিঠার মিশ্রনেরজন্যঃ
১। চালের গুড়া
২। হাসের ডিম (২-৩), (যদি না পাওয়া যায় তবে মুরগির ডিম)
৩।পানি
৪। লবণ ( স্বাদ মত)

খাবার উপযুক্ত করার জন্যঃ
১। একটা কড়াই
২।কড়াই  এর জন্য ঢাকনা- কড়াই সাইজের
৩। একটা চামুচ!

এবার আসি বানানোর পদ্ধতিতেঃ

মিশ্রণ তৈরির জন্য, প্রথমে একটা বাটিতে ডিমগুলো ভেঙ্গে নেই! তারপর তার সাথে চালের গুড়া মেশাবো। অবশ্যই হাত আগে ভালো করে ধুরে নেবেন যদি হাত দিয়ে করেন!  তারপর মাখা মাখা হয়ে এলে পানি দেব। পানি এমন ভাবে দিতে হবে যাতে খুব বেশি ঘন না হয় আবার খুব বেশি পাতলা না হয়। চামুচ দিয়ে যখন নাড়বেন তখন চামচে নিয়ে উপর থেকে পাত্রের দিকে ঢালবেন তাহলে বুঝা যাবে এর ঘনত্ব আসলে কতটুকু হয়েছে; ঘন না পাতলা। যদি মনে করেন পানি বেশি হয়ে গেছে তবে চালের গুড়া মিশিয়ে নিবেন। অবশ্যই লবণ দেবেন সাথে, তবে বেশি নয়! প্রয়োজনে আবার লবণ দিবেন।

আমি কোন পরিমাপ বলে দেই নেই আগে কারন জিনিশটা করতে করতে একটা আন্দাজ হয়ে গেছে! কখনও মেপে করি নাই আমি! আম্মুর কাছেও মাপটা চেয়েছিলাম বলতে পারে নাই। তো আমরা প্রয়োজন অনুপাতে নেব। কিছুটা আন্দাজ করেও বলা যায়!


এবার হাত ধুয়ে, কড়াইটা চুলায় বসাবেন! যেহেতু আমরা শহরের মানুষ, লাকড়ি চুলার জন্য আয়োজন  করতে হবে না। আগুন জ্বালিয়ে, কড়াই বসিয়ে দেবেন। একদম গরম হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। কারন টাটকা গরম না হলে পিঠা সুনদর ভাবে হবে না। দেখা যাবে তুলতে গিয়ে ভেঙ্গে যাবে বা নষ্ট হয়ে যাবে! কড়কড়া গরম না হলে ছড়ায় না মিশ্রণ ঠিকমত!

গরম হল কিনা তা পরীক্ষা করার জন্য একটু খানি পিঠার মিশ্রণ কড়াইতে ঢেলে দেখতে পারেন!
হয়ে গেলে। ডালের চামুচে ( বলতে, যে চামুচের সামনের দিকটা একটু গভীর হয়, পানিয় জাতীয় খাবার গুলা তোলার সুবিধার্তে যে চামচ ব্যবহার করা হয় সে গুলো) করে এক চামচ কড়াইতে দিয়েই, চামুচ নামিয়ে সাথে সাথে কড়াই এর দুইপাশ ধরে উঠিয়ে, চুলা থেকে একটু দূরে নিয়ে গিয়ে, গোলগোল করে নাড়তে থাকুন পুরোটা মিশ্রণ কড়াইতে ছড়িয়ে  গেলে সাথে সাথে চুলায় দিয়ে দিন! এরপর ঢাকনা দিয়ে একমিনিট ( যদি মিশ্রণের পরিমান বেশি দিয়ে থাকেন) বা আধা মিনিট রাখবেন (যদি কম দিয়ে থাকেন)। ঢাকনা উঠিয়ে রেখে, চামুচ দিয়ে আস্তে আস্তে করে পিঠাটা করাই থেকে আলত করে খুঁচিয়ে তুলে ফেলুন!
তোলার আগে হয়েছে কিনা, আন্দাজ না বুজলে একটু ঢাকনা উল্টিয়ে দেখতে পারেন! করেকবার করতে করতে বোঝা যায় কতক্ষণ পর ঢাকনা সরাতে হবে।

হয়ে গেলে নামিয়ে ফেলুন। প্রথমটা নামিয়ে নিজের খেয়ে দেখতে পারেন লবণের মাত্রা ঠিক আছে কিনা। কম মনে হলে একটু লবন মিশিয়ে দিতে পারেন বাকি মিশ্রণটুকুর সাথে!
এইভাবে আপনার ইচ্ছেমত করে বানিয়ে খেতে পারেন!

এর সাথে আপনি একটু নারিকেল আর মধু একসাথে মাখিয়ে খেতে পারেন। যারা মিষ্টি পছন্দ করে। আবার চাইলে মাংস দিয়ে খেতে পারেন বা ঝাল সবজি দিয়েও খেতে পারেন। ঝাল দিয়ে খেতেও অনেক ভাল লাগে!

বানাবো পর চোখের সামনে ধরলে অনেক গুড়া গুড়া ফুঁটো দেখা যায় পিঠাতে! এটাকে মনে হয় জালি পিঠাও বলে! আমি ঠিক জানি না! এটাই আমার দেখতে খুব ভাল লাগে। এক চোখে বন্ধ করে পিঠার মধ্যে দিয়ে অন্য প্রান্ত দেখা wink  আর  বানানোর পর অনেক মোলায়েম হয়!
মুরগির ডিম দিলে এত মোলায়েম হয় না; হাসের ডিমে যতটা হয়। আর ডিম হত দিবেন এটা তত মোলায়েম হবে আর ঘন হবে।

আর এই মিশ্রণ আপনি চাইলে ফ্রিজে রেখেও; পরে বানিয়ে খেতে পারবেন। বাটির মুখ ভালভাবে লাগে এমন পাত্রে রেখে ২-৩ দিন পর্যন্ত রাখতে পারবেন।!


আমি আজ মধু দিয়ে খেয়েছি একবার আবার ঝাল দিয়ে খেতে ইচ্ছে করছিল তো মাছের তরকারি ছাড়া আর কিছু ছিল না, তো আমি একটু আলু আর ঝোল দিয়ে খেয়েছি রাতে wink
ভালোই লেগেছে!

http://i.imgur.com/j4RoLto.jpg



এইবার নিজেরা বানিয়ে বানিয়ে গরম গরম খেয়ে দেখেন কেমন লাগে wink খেলে একতা করে ছবি এই টপিকে পোস্ট করে যাবেন! wink


সবাই ভাল থাকুন। সুস্থ থাকুন। আর পরিমিত খাওয়া দাওয়ার মধ্যে থাকুন  cool

**বসে বসে অনেক গুলো বানান ঠিক করলাম!  ghusi আরও ভুল চোখে পড়লে একটু বলে দিন!**

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন শামীম (১৯-১১-২০১৩ ০৩:৩০)

Re: খোলা পিঠা!

যদ্দুর জানি, খোলাতে ভাজা হয় (হত) জন্য নাম খোলা পিঠা।

আপনার রেসিপিটা চিতই পিঠার একটা ভেরিয়েন্ট মনে হল।
ছবি গুগলের সৌজন্যে
http://i1193.photobucket.com/albums/aa353/udraji/kolachitoi/P1100362.jpg

বিদেশে থাকাকালীন ঝটপট খাওয়ার জন্য যা করতাম তা হল, আটাতে লবন, পেঁয়াজ কুচি, লবন ইত্যাদি সহ পানি দিয়ে গুলিয়ে ফ্রাইপ্যানে ভারি করে সেকে তুলতাম। অন্তত রুটির চেয়ে দ্রুত হয়। আর বাসায় এই রকম জিনিষে আরেকটু হয়তো বাধাকপি দিয়ে (না দিলেও হয়) ডুবা তেলে বড়ার সাইজে ভেজে - ঝালের পিঠা নামে খাইতাম (মা করে দিত) এককালে।

যশোরে একবার ছিটপিঠা খেয়েছিলাম। জিনিষ বেসিকালি একই। খালি খোলাতে ছিটায় দেয়। ছবি দেখেন (চৌগাছা, যশোর,ডিসেম্বর ২০০৪ এর)
https://lh3.googleusercontent.com/IAhjM2mVIkNMJ_DMUgEgjEYrNI8qIYDpzPokerwkw18=w392-h522-no
বোনাস
http://farm2.staticflickr.com/1415/754685494_0a0128aa57.jpg
2004-Dec-Homemade cakes Jessore-BD by Hussainuzzaman, on Flickr

শামীম'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: খোলা পিঠা!

কনা, তোমরা খোলা পিঠা বল নাকি?
আমরা বলি খোলাজা পিঠা। খাইতে মনে কইতাছে। sad

মনের সাথে মগজের যুদ্ধ আমার সবসময়ই কারণ মগজ নিজের স্বার্থ ছাড়া আর কিছুই বুঝে না। তাই তাকে ঘুম পাড়িয়ে রেখে আপন মনের খেয়ালেই চলি। কোন বিষয়ে আমার মগজ খাটাতে বাধ্য হওয়া মানেই সেটার ইতি টানা।

Re: খোলা পিঠা!

এইটার নাম খোলা পিঠা? surprised নামেই পিঠা আসলে রুটির বিকল্প tongue
যাগ্গে আমাদের অঞ্চলে এটার আঞ্চলিক নাম "চডা" neutral আর শামীম ভাই যেটা "ছিটা পিঠার কথা বললেন ওটা আসলেই পিঠা। বানাতে বেশ কসরত করতে হয় আর গুণও থাকতে হয়। আঞ্চলিক নাম "ছিরুডি পিঠা/পিডা" kidding মাংশের ঝোল দিয়ে.. love উহু আর মনে করতে চাই না cry

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন Jol Kona (১৯-১১-২০১৩ ১৪:২৮)

Re: খোলা পিঠা!

শশী লিখেছেন:

কনা, তোমরা খোলা পিঠা বল নাকি?
আমরা বলি খোলাজা পিঠা। খাইতে মনে কইতাছে।  sad

শশীপু  hug আপনি কোথা থেকে এলেন এত্ত দিন পর  hug

  thinking খোলা পিঠা না খোলজা পিঠা  confused এইবার তো আমি কনফিউসড হয়ে গেলাম  ghusi
আম্মু যখন বলে শুনে তো তাই মনে হয়  worried
আম্মুকে আবার জিজ্ঞাসা করতে হবে তো!  roll


শামিম ভাইয়া !! দুইনাম্বার ছবিতে পিঠা কই!!!  roll roll roll মাংস না খালী দেখলাম। সাদা সাদা ছিটা বিটা কি একটা জানি!  আর তো কিছু নাই!

৩ নাম্বার ছবিতে কি কি আছে  big_smile
পুলি পিঠা, নারিকেল পিঠা, নকশি পিঠা! দুধ-পুলি পিঠা! আর গুলা তো চিনলাম না।   neutral



দক্ষিণের-মাহবুব, হুম!!  thinking ঠিক বলছেন! রুটির বিকল্প বলা যায়  big_smile

Re: খোলা পিঠা!

এই পিঠা চেপা শুঁটকির ভরত্যা দিয়া খাইতে ব্যাফুক স্বাদ  big_smile big_smile , তবে হাঁসের ডিম  roll (epic)  tongue tongue

নিবন্ধিতঃ১১/০৩/২০০৯ ,নিয়মিতঃ১০/০৩/২০১১, প্রজন্মনুরাগীঃ১৯/০৫/২০১১ ,প্রজন্মাসক্তঃ২৬/০৯/২০১১,
পাঁড়ফোরামিকঃ২২/০৩/২০১২, প্রজন্ম গুরুঃ০৯/০৪/২০১২ ,পাঁড়-প্রাজন্মিকঃ২৭/০৮/২০১২,প্রজন্মাচার্যঃ০৪/০৩/২০১৪।
প্রেম দাও ,নাইলে বিষ দাও

Re: খোলা পিঠা!

ফোরাম মিষ্টি হয়ে গেল

Re: খোলা পিঠা!

নোয়াখালীতে এটাকে খোলাজা পিঠা বলে,, এখানে মাটির তৈরী খোলা তাওয়ায় বানানো হয়,,আর এখানে চাল আর পানির মিশ্রন তৈরী করে তারপর ডিম ওপরে ছড়িয়ে  দেয়া হয়,খাওয়া হয় নারকেল আর জ্বাল দিয়ে ঘন করা খেঁজুর রস ( রাব ) দিয়ে,আজ সকালেও খেলাম,,,আগে খুব ভালো লাগত তখন চাল ঢেঁকিতে গুড়া করা হতো,কিন্তু এখন মেশিনে চাল গুড়া করার কারনে স্বাদ অনেক কম গেছে !,,,আর কনা আপু,আম্মু বলেছে এই পিঠার শুদ্ধ নাম নাকি শতমুখী পিঠা,,

স্নিগ্ধ শুভ্রতায় আমি. . . . .

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন Jol Kona (১৯-১১-২০১৩ ১৭:১৯)

Re: খোলা পিঠা!

লিরাফু লিখেছেন:

আর কনা আপু,আম্মু বলেছে এই পিঠার শুদ্ধ নাম নাকি শতমুখী পিঠা,,

হুম!!! আপু ঠিক আছে আপানর কথা! এটাই লিখতে আসছিলাম শতমুখী পিঠা! আম্মা এক টাইমের এক এক নাম বলে আমার মাথায় এই খোলা পিঠাটা বসে গেছে এই জন্য এইটাই লিখেছিলাম। খোলাজা / খোলা দুটাই চলে নোয়াখালীতে wink দাদা বাড়ি খোলা পিঠা শুনেছি, নানা বাড়িতে খোলাজা wink পিঠা!
তাইলে!! জালি পিঠা কোনটাকে বলে  confused thinking

জেমসবন্ড লিখেছেন:

এই পিঠা চেপা শুঁটকির ভরত্যা দিয়া খাইতে ব্যাফুক স্বাদ  big_smile big_smile

শুটকি ভর্তা দিয়ে  worried worried উম!!!

১০

Re: খোলা পিঠা!

Jol Kona লিখেছেন:
লিরাফু লিখেছেন:

আর কনা আপু,আম্মু বলেছে এই পিঠার শুদ্ধ নাম নাকি শতমুখী পিঠা,,

হুম!!! আপু ঠিক আছে আপানর কথা! এটাই লিখতে আসছিলাম শতমুখী পিঠা! আম্মা এক টাইমের এক এক নাম বলে আমার মাথায় এই খোলা পিঠাটা বসে গেছে এই জন্য এইটাই লিখেছিলাম। খোলাজা / খোলা দুটাই চলে নোয়াখালীতে wink দাদা বাড়ি খোলা পিঠা শুনেছি, নানা বাড়িতে খোলাজা wink পিঠা!
তাইলে!! জালি পিঠা কোনটাকে বলে  confused thinking

জেমসবন্ড লিখেছেন:

এই পিঠা চেপা শুঁটকির ভরত্যা দিয়া খাইতে ব্যাফুক স্বাদ  big_smile big_smile

শুটকি ভর্তা দিয়ে  worried worried উম!!!

কনাপু,এই পিঠারই আরেক নাম নাকি জালি পিঠা,,!! এইমাত্র আম্মুকে আবার জিজ্ঞাসা করে জানলাম,,

স্নিগ্ধ শুভ্রতায় আমি. . . . .

১১

Re: খোলা পিঠা!

এক অঙ্গে কত নাম hairpull, খোলা, খোলাজা, জালি, চডা, ইটা  ghusi ghusi

হা তাইলে তো আমার টা ঠিকই আছে! tongue নানুর বাড়িতে এটা প্রথম যখন দিয়েছিল খেতে, আমি ৩-৪ মিনিট এই পিঠা বাইনাকুলার বানায় খেলছি!  tongue_smile এত বড় বড় ফুটা হয়ে ছিল। এক চোখ বন্ধ করে ফিটা দিয়ে সবাইকে দেখে নেবার মজাই আলাদা  hehe
মাটির চুলায়, মাটির হাড়ি, আরও পাতলা করে দেয়! ফলে জালের মত হয় মনে হয়!
বাসায় আম্মু একটু পুরু করে দেয়। বানানোর প্রসেসিং এর উপর টেস্ট নির্ভর করে!!! আমার যা মনে হইল আরকি!   
লাকড়ি চুলার রান্নার মজাই আলাদা  love love

১২

Re: খোলা পিঠা!

খেতে কেমন?

১৩

Re: খোলা পিঠা!

খেতে কেমন  বললে কি বুঝবেন!!  thinking
তার থেকে বরং নিজে একটা করে খেয়ে দেখুন!  big_smile