টপিকঃ সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং/সিএসই কর্মজীবন এবং মনে কিছু প্রশ্ন (?)

আমি একটি সরকারী প্রতিষ্ঠান এ ডিপ্লোমা ইন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং এ পড়াশোনা করছি । প্রথমে ওখানে সিএসই তে ভর্তির আশা থাকলেও ভর্তি পরীক্ষা ভালো হওয়ায় দিয়ে সিভিল পেয়ে যাই । যদিও আগে বিএসসি এর জন্যেও সাবজেক্ট হিসিবে সিএসই বেশী ভালো লাগতো কিন্তু এখন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংটাতেই মন বসে গেছে । তবে সিএস এ আমি খুব ট্যালেন্টেড তেমনও না তবে ইন্টারমিডিয়েট/স্লাইডলি প্যাসোনেট বলতে পারেন, পড়াশোনায়ও তেমনি ।
শারীরিক কারনে হয়ত বাইরে কাজ করা সম্ভব না আর কম্পিউটারের সাথে শখ্য থাকায় ভবিষ্যতে আর্কিটেকচারাল/ডিজাইনিং এ ক্যারিয়ার গড়তে চাই ।এ ব্যাপারে মনে কিছু প্রশ্ন উকি দিচ্ছে আশাকরি এই বিষয়ে অভিজ্ঞরা সুপরামর্শ দিবেন ।

১. যদি ডিজাইনিং সংক্রান্ত কাজই করি বিএসসি কি সিভিলেই করব নাকি আর্কিটেকচারে ?
২. ডিজাইনিং এর চাহিদা বেশী নাকি কন্সট্রাকশনাল কাজের (মানে সিভিলের অন্যান্য বিষয়)?
৩. আমাদের দেশে ডিজাইনিং  কোন স্কিলের চাহিদা বেশি ? দেশের বাইরে কি কি স্কিল বেশী গুরুত্ত দেয়া হয় ?
৪. সম্ভাব্য প্রয়োজনীয় কি কি সফটওয়ার দক্ষ হলে ভালো ?
৫. এধরনের কাজেও কি ফ্রিল্যান্সিং এর সুযোগ আছে ? থাকলে কতটুকু ?
৬. বেসরকারী ইউনি গুলোর মাঝে কোনটা বেশি ভালো হবে সিভিল/আর্কিটেকচারের মত বিষয় গুলোর জন্য ?
৭. আমার ভাইয়া অনেক আগে থেকেই চাইতো আমি সিএসই পড়ি ( আমিও চাইতাম)  সেক্ষেত্রে এই সিদ্ধান্ত  আমার জন্য কতটুকু ভালো হবে ?


উত্তর গুলো ছাড়াও যে কোন প্রকার পরামর্শও আশা করছি  smile

  Tenacity - Focus - Discipline - Repetition

   Sabbir's Blog 

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং/সিএসই কর্মজীবন এবং মনে কিছু প্রশ্ন (?)

টপিকটায় কোনও উত্তর নেই! যাঁরা এব্যাপারে জানেন প্লিজ টমাটিনো ভাইকে হেল্প করুন।

"No ship should go down without her captain."

হৃদয়১'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি LGPL এর অধীনে প্রকাশিত

Re: সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং/সিএসই কর্মজীবন এবং মনে কিছু প্রশ্ন (?)

আমি সিএসই তে আছি , তবে করম জীবন নিয়ে একটাই প্ল্যান ডেভলপমেন্ট হোক সফট কিংবা ওয়েব। আর এখন আপাতত ব্যবসা করে যাচ্ছি । তবে সিএসই তে পড়লে চাক্রী রেডি একথা বলতে পারবো না। আর যদি ফ্রিল্যান্সিং করতে চান তবে সিএসই করেন আর বিবিএ করেন সব সেম , খালি যে কাজ করবেন সেটা জানতে হবে। যদিও আমাদের ফ্রিল্যান্সিং বাজারের অবস্থা অত ভালো না , পুলাপান কম দামে কাজ করে দেয়।

এই ব্যাক্তির সকল লেখা কাল্পনিক , জীবিত অথবা মৃত কারো সাথে মিল পাওয়া গেলে তা সম্পুর্ন কাকতালীয়, যদি লেখা জীবিত অথবা মৃত কারো সাথে মিলে যায় তার দায় এই আইডির মালিক কোনক্রমেই বহন করবেন না। এই ব্যক্তির সকল লেখা পাগলের প্রলাপের ন্যায় এই লেখা কোন প্রকার মতপ্রকাশ অথবা রেফারেন্স হিসাবে ব্যবহার করা যাবে না।

Re: সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং/সিএসই কর্মজীবন এবং মনে কিছু প্রশ্ন (?)

সাইফুল_বিডি লিখেছেন:

আর যদি ফ্রিল্যান্সিং করতে চান তবে সিএসই করেন আর বিবিএ করেন সব সেম , খালি যে কাজ করবেন সেটা জানতে হবে। যদিও আমাদের ফ্রিল্যান্সিং বাজারের অবস্থা অত ভালো না , পুলাপান কম দামে কাজ করে দেয়।

আমি আসলে বলতে চেয়েছিলাম যে আর্কিটেকচারাল/ডিজাইনিং রিলেটেড ফ্রিল্যান্সিং কাজ । সেটা অনলাইনেই হোক অথবা অফ্লাইনে ।

শামীম ভাই কই  ghusi ghusi

  Tenacity - Focus - Discipline - Repetition

   Sabbir's Blog 

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং/সিএসই কর্মজীবন এবং মনে কিছু প্রশ্ন (?)

টমাটিনো লিখেছেন:

শামীম ভাই কই  ghusi ghusi

ঘুমাইতেয়াছিলাম!

তিনটা কেইস স্টাডি দেই:
১। রায়হান চৌধুরী: প্রেসিডেন্সী ইউনিভার্সিটি থেকে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং-এ গ্রাজুয়েট এবং ওদের ব্যাচে ফার্স্ট। ও প্রেসিডেন্সিতেই চাকুরী করে এখন -- ডেটাবেস ম্যানেজার হিসেবে। কারণ প্রেসিডেন্সি ইউনিভার্সিটির ডেটা ম্যানেজমেন্টের অটোমেটেড অনলাইন সিস্টেমটা ওর হাতে তৈরী। ইদানিং ও এ ধরণের একটা সার্ভিস ডেভেলপ করে বিভিন্ন ইউনির কাছে বিক্রি করছে -- ডেটা ম্যানেজমেন্টের দায়িত্ব ওর সার্ভারে থাকবে। এক কথায় রায়হান সম্পর্কে বলা যায় - হি ইজ আ জিনিয়াস -- ওর সিভিলের রেজাল্টও সেটা প্রতিফলন ঘটিয়েছে। ও প্রচুর ফ্রী ল্যান্সিং কাজ করে -- পুরাপুরিই আইটি লাইনে। ওর সাইট:  http://raynux.com/

২। হাসিন হায়দার: রুয়েট থেকে পাশ করা সিভিল ইঞ্জিনিয়ার (HSC ৯২ ব্যাচ)। ওনাকে চেনার কারণ উনি তৎকালীন সময়ে একমাত্র বাংলা ব্লগ সামহোয়্যারইনের বিল্ট ইন ফোনেটিক কীবোর্ডটা বানিয়েছিলেন। এই কী বোর্ড প্রজন্ম ফোরামেও বিল্ট ইন ফোনেটিক হিসেবে কাজ করছে। PHP গুরু হিসেবে সুপরিচিত হাসিন আইটি লাইনেই ক্যারিয়ার করেছে। ওঁর ফার্ম ফেইসবুক অ্যাপস থেকে শুরু করে অনেক কিছুই বানায় ... ... .প্রজন্ম ফোরামের গেট টুগেদারগুলোতেও ওকে দেখা যায়। http://hasin.me/

৩। জেআরসি বা প্রফেসর জামিলুর রেজা চৌধুরী: বাংলাদেশে আইটি নীতিমালা বা এই ধরণের জিনিষে ওনার হাত হয়ে বেরিয়েছিলো প্রথম তত্বাবধায়ক সরকারের সময়ে -- উনি উপদেস্টা ছিলেন। তার ক্যারিয়ারে তাকে লোকজন আইটি লোক বলেই জানতো, কিন্তু উনি সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং এর প্রফেসর হিসেবেই রিটায়ার করেছেন বুয়েট থেকে -- বর্তমানে সম্ভবত ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিকের ভিসি, আগে ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির ভিসি ছিলেন। http://en.wikipedia.org/wiki/Jamilur_Reza_Choudhury

উপরোক্ত তিনজনই সিভিল ইঞ্জিনিয়ার। প্রথম দুজনের ক্যারিয়ার আইটিতে।

এবার আসি হাঙ্গরিকোডার - মোহাম্মদ জাকির হোসেন রাজু'র কথায় -- যে আমাদের প্রজন্ম ফোরামের মূল অ্যাডমিন ও পিতা। ওর সার্টিফিকেট হল বিবিএ, এমবিএ রাজশাহী ইউনি থেকে। ফুল টাইম ক্যারিয়ার আইটিতে। http://thehungrycoder.com/

ব্যক্তিগতভাবে আমি কয়েকটি ভিন্ন ডিসিপ্লিন থেকে আইটিতে আসাকে ক্লায়েন্টদের জন্য একটা আশির্বাদ বলে মনে করি। কারণ তিনি আইটির বাইরে ভিন্ন রকম প্রফেশনাল দৃষ্টিভঙ্গি দিয়ে ক্লায়েন্টের সমস্যাগুলো দেখেন, এবং ভিন্ন পরিপ্রেক্ষিতে ভিন্ন রকম সমাধাণের কথা চিন্তা করতে পারেন।

বিএসসি ইন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং থেকেই আমাদের প্রচুর কম্পিউটিং দরকার হয়। কারণ সিভিল স্ট্রাকচার ডিজাইন ও বিভিন্ন রকম অবকাঠামো মডেলিং-এ কম্পিউটারের শক্তির সাহায্য লাগবেই। যেহেতু একটা সরাসরি কার্যক্ষেত্রের সমস্যার সমাধান কম্পিউটারের সাহায্যে সমাধান করা হয়, কিংবা সমাধাণের লক্ষে কম্পিউটারকে সেভাবে ব্যবহার (প্রোগ্রামিং, মডেল ডেভেলপমেন্ট ইত্যাদি) করতে হয়, তাই সরাসরি রিয়েল লাইফ সমস্যা সমাধানে কিভাবে কম্পিউটার ও প্রোগ্রামিং ব্যবহার করা যায় সেটার একটা বেসিক ট্রেনিং সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং-এ আছেই। অন্য ইঞ্জিনিয়ারিং ডিসিপ্লিনেও সিমুলেশন ব্যবহার করা হয়। এসব কারণেই সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংএ numerical analysis and computer programming নামে একখানা কোর্স করাও বাধ্যতামূলক -- যাতে ইকুয়েশন সলভ করার বিভিন্ন বেসিক অ্যালগরিদম আর টেকনিক শেখানো হয়। তাই সিভিল পড়লে কম্পিউটারে দক্ষতা অর্জন বাধাগ্রস্থ হয় না, বরং আরো পোক্ত হয়।

আমার নিজের আন্ডারগ্রাজুয়েট থিসিস ছিল বেসিক ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যবহার করে একটা জেনেরিক স্ট্রাকচারাল ফ্রেমের সলুশন করা - যা ব্যবহারকারী থেকে একটা বড় অনেক স্প্যানওয়ালা বীমের ইনপুট নেবে (দৈর্ঘ্য, সাপোর্ট টাইপ এবং অবস্থান) তারপর সেটার যে কোন পজিশনে ইনফ্লুয়েন্স লাইন ডায়াগ্রাম এঁকে দেবে (ইনফ্লুয়েন্স লাইন কী জিনিষ?)। এজন্য নতুন ল্যাঙ্গুয়েজ (QBASIC) শিখে নিয়ে তারপর দেড়হাজার লাইনের কোডিং করতে হয়েছিলো (সিলেবাসে তখন FORTRAN শিখাতো, এখন C++ শিখায়)।

এবার আসি বিএসসি ইন সিভিল নাকি আর্কিটেকচার:
দুইটা ডিসিপ্লিনের ফোকাস ভিন্ন। একজন ভাল আর্কিটেক্টকে মেকানিক্সের বেসিক ভাল বুঝতে হয় -- এজন্য তাঁদেরকে সিভিলের সম্ভবত ৩টা মেকানিক্সের কোর্স করতে হয় (সিলেবাসেই আছে)। দুইটা পেশা-ই ভাল। দুই পেশাতেই বেকার লোক পাওয়া যাবে খুঁজলে। তবে আমার মনে হয় আর্কিটেকচারে স্টার্টিং স্যালারি ভাল। তবে আর্কিটেক্ট যা পারে সিভিল ইঞ্জিনিয়ার সেটা করতে প্রশিক্ষিত নয় এবং ভাইস ভার্সা। ডেস্ক জব করতে চাইলে আর্কিটেকচার সিভিলের চেয়ে ভাল, তবে সিভিল পড়লে কাজের ক্ষেত্র অনেক বড় -- আর্সেনিক মিটিগেশন, ওয়াটার সাপ্লাই, ব্যারেজ, ড্যাম, রিভার ট্রেনিং থেকে সুয়ারেজ, ইটিপি, ট্রিটমেন্ট প্লান্ট থেকে লেক, পার্ক ডেভেলপমেন্ট থেকে বিল্ডিং, এলিভেটেড হাইওয়ে, রেলওয়ে, রানওয়ে, এয়ারপোর্ট, ট্রাফিক ম্যানেজমেন্ট --- সবই আছে।

আবার সিভিল ইঞ্জিনিয়ার যত কেরামতিই করুক না কেন সাধারণত বিখ্যাত স্ট্রাকচারগুলোর নামের সাথে আর্কিটেক্টের নামই সামনে আসে -- কারণ ওনার কাজটা সাধারণত মৌলিক কাজ হয়। সামান্য কিছু ক্ষেত্রেই স্ট্রাকচারাল বা সিভিল ইঞ্জিনিয়ার প্রাপ্য ক্রেডিট পায়। সিভিল ইঞ্জিয়ারের কাজটা খুব গুরুত্বপূর্ণ হলেও সরাসরি দেখা যায় না -- অন্ততপক্ষে নন-প্রফেশনালদের পক্ষে জানাই সম্ভব না যে ভেতরে কত কেরামতি করতে হয়, কত মাথার চুল ছিড়তে হয়, আর্কিটেক্টের সাথে ওনার বানানো আজগুবি ভারসাম্য নিয়ে কত মারামারি করতে হয় ... সেই আজগুবি জিনিষকে টিকিয়ে রাখার জন্য কত রকম আউট-অব-দ্যা টেক্সটবুক চিন্তা এবং অ্যানালাইসিস করতে হয় ... ...। আজগুবি আকারের বিভিন্ন ভাষ্কর্য না ভেঙ্গে দাঁড়িয়ে থাকে সিভিল ইঞ্জিয়ারের দক্ষতায় কিন্তু আর নন-প্রফেশনাল পাবলিক শুধু স্ট্রাকচারটার আবয়ব দেখে -- কাজেই ক্রেডিট গোজ টু দ্যা আর্কিটেক্ট। পাবলিক ডিজাইন বলতে বাইরের আবয়বের আকারটা বুঝে, কিন্তু সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংএ ডিজাইন হল, আর্কিটেক্টের বেঁধে দেয়া সীমার মধ্যে কাঠামোটাকে টিকিয়ে রাখার জন্য ভেতরের স্কেলিটনটাকে সবচেয়ে নিরাপত্তা অব্যহত রেখে কম খরচে টেকসই বানানো।

কোথায় আর্কিটেকচার ভাল পড়ায় আমার জানা নাই। সিভিল পড়তে চাইলে প্রাইভেটের মধ্যে আহসানউল্লাহ ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিক এবং প্রেসিডেন্সি ইউনিভার্সিটি ভাল। পাশ করা বড় ভাইদের জিজ্ঞেস করে দেখেন ওদের ফার্মে যাঁরা ইঞ্জিনিয়ার, তারা কে কোত্থেকে পাশ করেছে -- এবং তাদের নিজস্ব ইউনিভার্সিটি সম্পর্কে মূল্যায়ন কেমন + প্রফেশনে তাঁরা কেমন করছে। এর পাশাপাশি বিভিন্ন ইউনিভার্সিটির ওয়েবসাইটে তাদের শিক্ষক এবং সুযোগ সুবিধার (+খরচের) তথ্যগুলো দেখলেও কিছু সিদ্ধান্ত নেয়া সহজ হবে। এছাড়া নিজের প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্ট বিষয়ের (সিভিল, স্থাপত্য) শিক্ষকদের জিজ্ঞেস করে দেখতে পারেন - ওনারা কী সাজেস্ট করেন।

শামীম'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং/সিএসই কর্মজীবন এবং মনে কিছু প্রশ্ন (?)

ধন্যবাদ শামীম ভাইকে । মোটামুটি ভালো ধারনা পেলাম । সিভিল, আর্কিটেক্ট যাই পড়ি না কেন কম্পিউটিং জনিত কাযে হয়ত পূর্বের অভিজ্ঞতা থেকে বাড়তি সুবিধা পাব । আইটি নিয়ে নিয়ে না পড়ালেখা করে ক্যারিয়ার করার সাহস পাচ্ছি না । কারনটা হয়ত কখনও আইটি শখের চেয়ে বেশি কিছু ভাবিনি ।

তবে পরিশেষে সিদ্ধান্তটা নিজেকেই নিতে হবে যা ভবিষৎই বলবে সঠিক ছিল নাকি ভুল  whats_the_matter

বেকার থাকার সম্ভবনা কেমন সেইটা বলেন  tongue

  Tenacity - Focus - Discipline - Repetition

   Sabbir's Blog 

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন রিং (০৫-১২-২০১২ ১৬:১৬)

Re: সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং/সিএসই কর্মজীবন এবং মনে কিছু প্রশ্ন (?)

প্রিয় টমাটিনো আমি নিজেই প্রযুক্তি বিষয়ে বেসরকারী ও সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় এবং প্রতিষ্ঠানে অতিথি ও নিয়মিত শিক্ষকতায় যুক্ত ছিলাম কিছু সময়। বর্তমানে জালাল আহমেদ গ্রুপের এমআইএস ও আইটি বিভাগের দ্বায়িত্বে আছি। কিন্তু আমার গ্রাজুয়েশন ছিলো ইংরেজী সাহিত্যে। আমি সব সময় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির মানুষ ছিলাম, আছি এবং আমরণ থাকতে চাই।

বেকারত্বের প্রচলিত ধারনা থেকে বললে আমি ""চিরায়ত বেকার'' একজন। কারন আমার মগজ প্রসুত প্রায় প্রতিটা কাজেই আমার নিজের বটুয়াতে অর্থ যোগ না হয়ে বিয়োগ ঘটে থাকে। আর নিয়মিতই দেশের ভেতরে-বাইরে চষে বেড়াচ্ছি উন্মুক্ত প্রযুক্তির বার্তা নিয়ে সে তো আন্তর্জালিক পরিবারের প্রায় সবাই অবগত। কিন্তু বিশ্বাস করেন আমার এই কাজগুলোতে আমার ভালোলাগা, ভালোবাসা এবং আত্মার একান্ত বিশ্বাসের প্রতিফলন রয়েছে। আর তাই আমি আমার নিজের ইচ্ছে মতো কাজ করি এবং একজন ""কর্মময় সুখী মানুষ''।

রিং'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত