সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন আগন্তুক মিলন (১৮-০৮-২০১২ ২৩:১৯)

টপিকঃ ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

আজকে যদি আকাশে শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যেত তাহলে আগামীকাল হত ঈদুল ফিতর। আসলে চাঁদ দেখার সাথে সাথেই ঈদ শুরু হয়ে যায়, কারন হিজরী দিন শুরু হয় সূর্যাস্ত থেকে, যেমন ইংরেজি তারিখ শুরু হয় রাত ১২ টা থেকে, বাংলা তারিখ শুরু হয় সূর্যোদয় থেকে।
কিন্তু আজকে বাংলাদেশের আকাশে চাঁদ দেখা যাবে না এটা আমি জানতাম। আসলে কবে আকাশে চাঁদ দেখা যাবে আর কবে যাবে না এটা নির্ভর করে পৃথিবীর সাথে চাঁদের অবস্থান আর সূর্যের আলো চাঁদের উপর কতটুকু পড়ে তার উপর। জ্যোতির্বিজ্ঞান আমাদেরকে বলে দিতে পারে, কবে পৃথিবীর কোন জায়গার আকাশে চাঁদ দেখা যাবে আর কোথায় কোথায় দেখা যাবে না।
আসলে আজকে আমাদের দেশের আকাশে চাঁদ ছিল, কিন্তু তা আমরা খালি চোখে দেখতে পারি নি। এর কারন সাধারনত চাঁদ যদি দিগন্তরেখার ১০ ডিগ্রি বা তার উপরে থাকে তাহলে আমরা খালি চোখে তা দেখতে পারি, তবে তার জন্য চাঁদের কমপক্ষে ৪ শতাংশ জায়গায় সূর্যের আলো পড়তে হবে। কিন্তু আজ আমাদের দেশের আকাশে চাঁদ ছিল দিগন্ত রেখার মাত্র ২ ডিগ্রি উপরে আর চাঁদের ২ শতাংশে মাত্র সূর্যের আলো পড়েছিল। তাই আমরা চাঁদ দেখতে পাই নি। আগামীকাল কিন্তু আমরা ঠিকই চাঁদ দেখবো, এবং কালকে বাংলাদেশের আকাশে চাঁদে প্রায় ১ ঘন্টা ১০ মিনিট ধরে দেখা যাবে, কালকে চাঁদ অবস্থান করবে দিগন্তরেখার ১১ ডিগ্রি উপরে।
একইভাবে বলে দেয়া যায় কবে ঈদুল আযহা হবে। কোরবানীর ঈদ হবে অক্টোবর মাসের ২৮ তারিখ।

একটা জিনিস লক্ষ করলে আমরা দেখবো, আমাদের দেশে প্রতিবছর আমাদের দেশে ঈদ হয় সৌদি আরবের ১ দিন পর অথচ সৌদি আরবের সাথে আমাদের সময়ের পার্থক্য মাত্র তিন ঘন্টা। সে হিসেবে আমেরিকার ৪ দিন পর আমাদের ঈদ হওয়ার কথা কারন সময়ের পার্থক্য প্রায় ১২ ঘন্টা কিন্তু ঈদ হয় ২ দিন পর। এর কারনও কিন্তু চাঁদের অবস্থানের উপরেই লুকিয়ে আছে। আপনারা যদি ভয়েজার স্কাই গ্যাজার বা গুগোল স্কাই ম্যাপ ব্যবহার করেন তাহলে এই বিষয়গুলো একদমই পরিষ্কার হয়ে যাবে। এ কারনেই হিজরী বছর ৩৫৫ দিনে হয়, ৩৫৪ বা  ৩৫৭ দিনে না। মাঝে মাঝে অবশ্য ৩৫৬ দিনে হয় এর কারনও কিন্তু চাঁদ-সূর্যের অব্স্থানের উপরেই নির্ভর করছে। লিপ ইয়ার যে কারনে হয় হিজরী সনও সে কারনেই ৩৫৬ দিনে হয়।

আমার লেখায় কিছুটা ভুল থাকতে পারে, কারন এর বেশিরভাগই স্মৃতি থেকে লেখা। ভুলত্রুটি ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখলে এবং ধরিয়ে দিলে খুশি হবো।

এই টপিকের কৃতজ্ঞতা অনুসন্ধুৎসু চক্র বিজ্ঞান সংগঠনের নাইমুল ইসলাম অপু ভাইয়ের কাছে যিনি আমাকে জ্যোতির্বিজ্ঞান সম্পর্কে আগ্রহী করে তুলেছেন এবং প্রয়াত ভাষাবিদ ড. হুমায়ূন আজাদের প্রতি যার বই পড়ে আমি এই সব হিসাব-নিকাশ শিখেছি।

পূর্বে আমার ব্যক্তিগত ব্লগে প্রকাশিত।

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

আগন্তুক মিলন লিখেছেন:

আপনারা যদি ভয়েজার স্কাই গ্যাজার বা গুগোল স্কাই ম্যাপ ব্যবহার করেন তাহলে এই বিষয়গুলো একদমই পরিষ্কার হয়ে যাবে

stellerium ইউজ করি। তাই আগে থেকেই বলতে পারি কবে ঈদ হবে বা হবে না। তাছাড়া পঞ্জিকাতেও সঠিক তারিখ লেখা থাকে। কিন্তু অনেকেই তা ফলো করেনা।

Feed থেকে ফোরাম সিগনেচার, imgsign.com
ব্লগ: shiplu.mokadd.im
মুখে তুলে কেউ খাইয়ে দেবে না। নিজের হাতেই সেটা করতে হবে।

শিপলু'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি GPL v3 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

চমৎকার লেখার জন্য একটা রোপু রইলো।

এখনো অনেক অজানা ভাষার অচেনা শব্দের মত এই পৃথিবীর অনেক কিছুই অজানা-অচেনা রয়ে গেছে!! পৃথিবীতে কত অপূর্ব রহস্য লুকিয়ে আছে- যারা দেখতে চায় তাদের নিমন্ত্রণ।

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

মরুভূমির জলদস্যু লিখেছেন:

চমৎকার লেখার জন্য একটা রোপু রইলো।

আমার রেপুর কারণও এক।

"সংকোচেরও বিহ্বলতা নিজেরই অপমান। সংকটেরও কল্পনাতে হয়ও না ম্রিয়মাণ।
মুক্ত কর ভয়। আপন মাঝে শক্তি ধর, নিজেরে কর জয়॥"

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

...আমি অতশত বুঝি না, তবে সৌদি আরবে ঈদ হচ্ছে না ঘোষণা শুনে তখনই মনে হয়েছে এখানে ঈদ একদিন পিছিয়ে গেল।

আমার সকল টপিক

কোনো কিছু বলার নেই আজ আর...

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

শিপলু লিখেছেন:

stellerium ইউজ করি। তাই আগে থেকেই বলতে পারি কবে ঈদ হবে বা হবে না। তাছাড়া পঞ্জিকাতেও সঠিক তারিখ লেখা থাকে। কিন্তু অনেকেই তা ফলো করেনা।

স্যাটেলারিয়াম আমি নিজেও বেশিরভাগ সময়ই ব্যবহার করি। তবে আমি যে দু-একটি কারনে এখনো জানালা ইউজাই তার মধ্যে অন্যতম কারন হচ্ছে ভয়েজার স্কাই গ্যাজার। এটা অসাধারন। বাংলাদেশে খুব সম্ভবত ১৫ জনের কাছেও এই সফটয়্যারটা নেই। নাসার বিজ্ঞানীরা এটা ব্যবহার করে। বাংলাদেশের বিখ্যাত জ্যোর্তিপদার্থবিদ ড. এ. আর. খান স্যার নাসা ছেড়ে আসার সময় এটা নিয়ে আসেন।
আসলে পঞ্জিকা সম্পর্কে আমার ঠিক ধারনা নেই। তবে আপনার কথা শুনে সিদ্ধান্ত নিয়েছি, পঞ্জিকা নিয়ে ঘাটাঘাটি শুরু করবো।

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

আগন্তুক মিলন লিখেছেন:

তবে আমি যে দু-একটি কারনে এখনো জানালা ইউজাই তার মধ্যে অন্যতম কারন হচ্ছে ভয়েজার স্কাই গ্যাজার। এটা অসাধারন। বাংলাদেশে খুব সম্ভবত ১৫ জনের কাছেও এই সফটয়্যারটা নেই। নাসার বিজ্ঞানীরা এটা ব্যবহার করে। বাংলাদেশের বিখ্যাত জ্যোর্তিপদার্থবিদ ড. এ. আর. খান স্যার নাসা ছেড়ে আসার সময় এটা নিয়ে আসেন।

২০১০ সালের ঐ সফটওয়্যার তো ফ্রি না। দেখলাম কিনতে হবে। বাংলাদেশে টাকা দিয়ে কিনে সফটওয়্যার এমনিতেই মানুষ ইউজ করে না। তারউপর জ্যোতির্বিজ্ঞানের সফটওয়্যার তো আরও না।

স্টেলেরিয়ামও ভাল। এটা ফ্রি। আরও ভেঙ্গে বলতে গেলে ওপেন সোর্স। এবং হিসাব নিকাশ অনেক নিখুঁত করে। আমার টেলিস্কোপের সাথে একটা সফট্যারের ডিমো দিয়েছিল। নাম ভুলে গেছি। ওটা যে কোন টেলিস্কোপ অটো পজিশন করতে পারে যেকোন তারা বরাবর। তার মানে বুঝুন কি পরিমান তার অ্যাকুরেসি।

Feed থেকে ফোরাম সিগনেচার, imgsign.com
ব্লগ: shiplu.mokadd.im
মুখে তুলে কেউ খাইয়ে দেবে না। নিজের হাতেই সেটা করতে হবে।

শিপলু'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি GPL v3 এর অধীনে প্রকাশিত

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

ভয়েজার আর স্কাই গ্যাজার দুটি তো মনে হয় আলাদা আলাদা সফটওয়ার না কি?   thinkinghttp://www.carinasoft.com/downloads.html

"সংকোচেরও বিহ্বলতা নিজেরই অপমান। সংকটেরও কল্পনাতে হয়ও না ম্রিয়মাণ।
মুক্ত কর ভয়। আপন মাঝে শক্তি ধর, নিজেরে কর জয়॥"

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন আগন্তুক মিলন (১৯-০৮-২০১২ ১৩:৩২)

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

শিপলু লিখেছেন:

আমার টেলিস্কোপের সাথে একটা সফট্যারের ডিমো দিয়েছিল। নাম ভুলে গেছি। ওটা যে কোন টেলিস্কোপ অটো পজিশন করতে পারে যেকোন তারা বরাবর। তার মানে বুঝুন কি পরিমান তার অ্যাকুরেসি।

আমি এ ধরনের একটা সফটয়্যার ব্যবহার করেছি, নাম অটোডোম। আমরা অনুসন্ধিৎসু ক্লাবের পক্ষ থেকে শীতলক্ষা নদীর পাড়ে ডেমরাতে একটা মান মন্দির করেছিলাম। যেটাতে একটা সাড়ে আট ইঞ্চি ডায়ামিটারের টেলিস্কোপ বসেছিলাম। এই টেলিস্কোপটা দিয়েই পড়ে পঞ্চগড়ে আমরা পূর্ণ সূর্যগ্রহনের ছবি তুলি যেগুলো প্রথম আলো সহ দেশ-বিদেশের অনেক পত্র-পত্রিকা আর জার্নালে ছাপা হয়। সেই টেলিস্কোপ আমরা নিয়ন্ত্রন করতাম অনুর সাদ্দাম ভাইয়ের বাসা থেকে যা প্রায় ঐ মানমন্দির থেকে ৩ কিলোমিটার দূরে। এত এক্যুরেট হিসাব দিত কি বলবো। আমরা ভেগা, ক্যানিস মেজর, স্যাজিটারিয়াস তারামন্ডলের অসাধারন কিছু ছবি তুলেছিলাম। অপু ভাই তো নতুন তারাই আবিষ্কার করলেন যা উনার নামে পেটেন্ট করা আছে। এর অনেকগুলো ছবিই ব্রিটিশ এস্ট্রোনমিকাল এসোসিয়েশনের ম্যাগাজিনে ছাপা হয়। তখন থেকেই অপু ভাই জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন। এখন তো প্রথম আলোর বিজ্ঞান প্রজন্মের প্রায় প্রত্যেক সংখ্যাতেই উনার লেখা থাকে।

আরণ্যক লিখেছেন:

ভয়েজার আর স্কাই গ্যাজার দুটি তো মনে হয় আলাদা আলাদা সফটওয়ার না কি?   thinkinghttp://www.carinasoft.com/downloads.html

হ্যাঁ আলাদা, তবে সেটআপ করে একসাথে কাজ করা যায়। সবাই আসলে সেটাই করে।
আমার কাছে যেটা আছে সেটা পোর্টেবল ভার্সন।

১০

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

আগন্তুক মিলন লিখেছেন:

একটা জিনিস লক্ষ করলে আমরা দেখবো, আমাদের দেশে প্রতিবছর আমাদের দেশে ঈদ হয় সৌদি আরবের ১ দিন পর অথচ সৌদি আরবের সাথে আমাদের সময়ের পার্থক্য মাত্র তিন ঘন্টা।

৺চাদপুরের কিছু অঞ্চলে ৫০/৬০ বছর থেকে সৌদি আরবের সাথেই রোজা রাখছে ও ঈদ উদযাপন করে আসছে।
প্রতি বছরই সৌদি আরবইতো প্রথম ৺চাদ দেখে বা রোজা রাখে ও ঈদ উদযাপন করে।
আমার একটা প্রশ্নঃ নতুন ৺চাদ কি সব সময়ই সর্বপ্রথম সৌদির আকাশেই প্রকাশ পায়? নতুন ৺চাদের উদয় সর্বপ্রথম অন্য কোন দেশের আকাশে কি কখনও হওয়া সম্ভব নয়?

১১

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

Ahmad লিখেছেন:

আমার একটা প্রশ্নঃ নতুন ৺চাদ কি সব সময়ই সর্বপ্রথম সৌদির আকাশেই প্রকাশ পায়? নতুন ৺চাদের উদয় সর্বপ্রথম অন্য কোন দেশের আকাশে কি কখনও হওয়া সম্ভব নয়?

আমারতো মনে হয় সৌদিদের পশ্চিমে যে দেশের অবস্থান তারাই আগে দেখবে। দেখি আমাদের জ্যোর্তিবিজ্ঞানী আগন্ত্তুক মিলন ভাই কি বলেন।

১২

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

ধন্যবাদ। আমি আগে ভাবতাম চাদ চাদের মতই উঠছে নামছে। এটা আবার না দেখা যাবার কি হল  tongue

এম. মেরাজ হোসেন
IQ: 113
http://www.iq-test.cc/badges/4774105_3724.png

১৩

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

Ahmad লিখেছেন:

নতুন ৺চাদ কি সব সময়ই সর্বপ্রথম সৌদির আকাশেই প্রকাশ পায়?

নাহ। নিউজিল্যান্ড সহ অনেক দেশে সৌদির চেয়ে অনেক সময় একদিন আগেই দেখা যায়।

লেখাটি LGPL এর অধীনে প্রকাশিত

১৪ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন Ahmad (১৯-০৮-২০১২ ১৫:২২)

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

দ্যা ডেডলক লিখেছেন:
Ahmad লিখেছেন:

নতুন ৺চাদ কি সব সময়ই সর্বপ্রথম সৌদির আকাশেই প্রকাশ পায়?

নাহ। নিউজিল্যান্ড সহ অনেক দেশে সৌদির চেয়ে অনেক সময় একদিন আগেই দেখা যায়।

বাংলাদেশে যারা সৌদিকে অনুসরণ করে রোজা ও ঈদ পালন করে, তাদের ধারণা সৌদিতেই প্রথম ৺চাদ দেখা যায়।
তাহলেতো তাদের যুক্তিটা সঠিক নয়।

ডেডলক ভাইকে ধন্যবাদ।

১৫

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

তাহলে এটা হিসাব করে আগেই বলে দেয় না কেন ? সন্ধ্যা পর্যন্ত চাদ দেখা কমিটি বলে মিটিং করে তারপর বলে কেন ?
শেখ হাসিনা'র আগের বারের টার্মে একবার রাত ১০ টার সময় ঈদের চাদ উঠার ঘোষনা দিয়েছিলো, কার কার মনে আছে ? হিসাবনিকাশ করে আগেই ঘোষনা দিলে তো এইরকম বিভ্রান্তি এড়ানো যায়  thinking thinking

সারিম'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

১৬

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

সারিম লিখেছেন:

তাহলে এটা হিসাব করে আগেই বলে দেয় না কেন ? সন্ধ্যা পর্যন্ত চাদ দেখা কমিটি বলে মিটিং করে তারপর বলে কেন ?
শেখ হাসিনা'র আগের বারের টার্মে একবার রাত ১০ টার সময় ঈদের চাদ উঠার ঘোষনা দিয়েছিলো, কার কার মনে আছে ? হিসাবনিকাশ করে আগেই ঘোষনা দিলে তো এইরকম বিভ্রান্তি এড়ানো যায়  thinking thinking

আসলে হিজরী সনের অনেক সীমাবদ্ধতা আছে। হিসাব করে ঠিকই বলে দেয়া যায় কবে আকাশে খালি চোখে চাঁদ দেখা যাবে আর কবে যাবে না। কিন্তু আকাশে আজকে চাঁদ দেখা যাওয়ার কথা থাকলেও চাঁদ নাও দেখা যেতে পারে। শুধুমাত্র আবহাওয়া খারাপ হওয়ার কারনে কেউ যদি চাঁদ না দেখে তাহলে আকাশে চাঁদ থাকা সত্ত্বেও হিজরী নতুন মাস শুরু হবে না।
আর ইসলাম ধর্মের নিয়ম অনুযায়ী যদি ২ জন পূর্ণবয়স্ক পুরুষ বা ৪ জন পূর্ণবয়স্ক নারী চাঁদ দেখেছে বলে দাবী করে তাহলে সে অনুযায়ী ঈদ হবে। ব্যাপারটায় আসলে বিশাল গলদ রয়ে গেছে। আমি আর আপনি যদি চাঁদ দেখা কমিটির কাছে ফোন করে বলি আজকে আকাশে চাঁদ উঠেছে আর আমরা দুজন দেখেছি তাহলে আগামীকাল ঈদ না হলেও সারাদেশে ঈদ পালিত হবে। এর আগে যে রাত দশটায় ঈদের চাঁদ উঠেছিল, সেবার এই ধরনের কোন ঘটনাই মনে হয় ঘটেছিল। আসলে এই চাঁদ দেখা কমিটি কি করে সেটাই আমার কাছে একটা রহস্য!!!

১৭

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

Ahmad লিখেছেন:

বাংলাদেশে যারা সৌদিকে অনুসরণ করে রোজা ও ঈদ পালন করে, তাদের ধারণা সৌদিতেই প্রথম ৺চাদ দেখা যায়।

সেটা না। অনেক সময় বাংলাদেশে তিন দিন ঈদ হয়। এক পীরের(চাঁদপুর সাইডের) ভক্তরা দুনিয়ার যে কোন স্থানে চাঁদ দেখা গেলে তারা ঈদ পালন করে। চাঁদপুর সাইডের অন্য পীরের অনুগতরা সৌদিকে অনুসরণ করে রোজা ও ঈদ পালন করে। আর বাকিরা সরকারী নিয়ম অনুযায়ী ঈদ পালন করি।

লেখাটি LGPL এর অধীনে প্রকাশিত

১৮

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

দ্যা ডেডলক লিখেছেন:
Ahmad লিখেছেন:

বাংলাদেশে যারা সৌদিকে অনুসরণ করে রোজা ও ঈদ পালন করে, তাদের ধারণা সৌদিতেই প্রথম ৺চাদ দেখা যায়।

সেটা না। অনেক সময় বাংলাদেশে তিন দিন ঈদ হয়। এক পীরের(চাঁদপুর সাইডের) ভক্তরা দুনিয়ার যে কোন স্থানে চাঁদ দেখা গেলে তারা ঈদ পালন করে। চাঁদপুর সাইডের অন্য পীরের অনুগতরা সৌদিকে অনুসরণ করে রোজা ও ঈদ পালন করে। আর বাকিরা সরকারী নিয়ম অনুযায়ী ঈদ পালন করি।

সঠিক কথা। কিন্তু প্রত্যেকেই প্রত্যেকের যুক্তি দেখাচ্ছে। প্রকৃতপক্ষে কোনটা সত্য। সবগুলোই কি সত্য? বাংলাদেশের জন্য তিন দিন ঈদ পালন করা বিভ্রান্তিমূলক। আল্লাহ্ মালুম।

১৯

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

যে অঞ্চলে যেদিন চাঁদ দেখা যাবে, সে অঞ্চলে সেদিন ঈদ হবে।

২০

Re: ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে কিছু কথা

আগন্তুক মিলন লিখেছেন:

যে অঞ্চলে যেদিন চাঁদ দেখা যাবে, সে অঞ্চলে সেদিন ঈদ হবে।

এটাই হলো বড় কথা । কিন্ত ওদেরকে একথা বুঝানো যায় না । sad