৮১

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

ইউনিটি পাঁচ মিনিট ইউজ করতে গেলে আমার মাথাটা গরম
হয়ে ‌যায়।
জঘন্য একটা জিনিস।

ম্যাচের কাঠি নিজেও জানেনা যে তার মধ্যে আগুন আছে।
আমরা প্রত্যেকেই ম্যাচের কাঠির মতো।
আগুনটা বের করতে শুধু একটা ঘষা দরকার।

৮২

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

আকীক লিখেছেন:

ইউনিটি পাঁচ মিনিট ইউজ করতে গেলে আমার মাথাটা গরম
হয়ে ‌যায়।
জঘন্য একটা জিনিস।

আমি নিজেও ইউনিটির ফ্যান না। যদিও জঘন্য জিনিস কিনা তা জানি না। এই দিকে গ্নোম ৩ আমার কাছে অসাধারণ লেগেছে! thumbs_up

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

৮৩ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন অলোক (১৯-০৮-২০১১ ২১:০৬)

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

আকীক লিখেছেন:

ইউনিটি পাঁচ মিনিট ইউজ করতে গেলে আমার মাথাটা গরম
হয়ে ‌যায়।

জঘন্য একটা জিনিস।

আশিকুর_নূর লিখেছেন:

আমি নিজেও বন্টু ইউসার, আর ইউনিটি ন্মোম ৩ কোনটাই ভাল লাগে নাই, ইউনিটি আনস্টেবেলিটি এবং ন্মোম ৩ চালাতে বেশি হিমশিম খেতে হয় তাই এখন ন্মোম ২ এই খুশি আছি, এটাতেই থাকব ১২.০৪ আসার আগ পর্যন্ত।

হৃদয় লিখেছেন:

ইউনিটি একটা নতুন ডিফল্ট জিনিস এবং সম্ভবত ফ্লপ খাবে।

ইউনিটি এখন বাচ্চা, এখনও এসব বলার সময় আসেনি। ন্মোম ৩ তো অামার কাছে জোশ! সম্পূর্ণ নুতন একটা ঘরানার ইউঅাই, এটাই ব্যবহার করছি। অাসলে অামরা সবাই রক্ষনশীল মনোভাবাপন্ন, অামরা সহজে কোন পরিবর্তনই মেনে নিতে পারিনা, তবে অামাদের মনে রাখতে হবে সবক্ষেত্রেই কৃতীরা হাতগুটিয়ে বসে থাকবেনা, ডেভেলপাররা নুতন জিনিস অানবেই, অার ভবিষ্যতে এগুলোই অামাদের জীবনে অপরিহার্য হয়ে যাবে।

Despise Wisdom

৮৪

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

‌আচ্ছা সম্পূর্ন আফটপিক: গ্নোম ৩ কিভাবে ১১.০৪ এ ব্যবহার করব? কোন টিউটো?

One can steal ideas, but no one can steal execution or passion. - Tim Ferriss

৮৫

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

অপরিচিত লিখেছেন:

‌আচ্ছা সম্পূর্ন আফটপিক: গ্নোম ৩ কিভাবে ১১.০৪ এ ব্যবহার করব? কোন টিউটো?

এখন অফিসিয়াল কোন কিছু আসে নাই, ১১.১০ তে পাবেন।

আশিকুর_নূর'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-nd 3. এর অধীনে প্রকাশিত

৮৬

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

আশিকুর_নূর লিখেছেন:
অপরিচিত লিখেছেন:

‌আচ্ছা সম্পূর্ন আফটপিক: গ্নোম ৩ কিভাবে ১১.০৪ এ ব্যবহার করব? কোন টিউটো?

এখন অফিসিয়াল কোন কিছু আসে নাই, ১১.১০ তে পাবেন।

ধন্যবাদ ভাইয়া, তাহলে ওটা আসার অপেক্ষা করি  smile

One can steal ideas, but no one can steal execution or passion. - Tim Ferriss

৮৭

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

ওনিরিকে সম্ভবত ইউনিটি গ্নোম ৩ এ পোর্ট করবে। আর ক্লাসিক ডেস্কটপ আর থাকছেনা সাথে।  পুরোটাই ইউনিটি।  neutral

৮৮

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

অপরিচিত লিখেছেন:

আচ্ছা সম্পূর্ন আফটপিক: গ্নোম ৩ কিভাবে ১১.০৪ এ ব্যবহার করব? কোন টিউটো?

নিচের নির্দেশ মত কাজ করুনঃ হাইস্পীড ইন্টারনেট অাবশ্যক।(সিস্টেম ক্র্যাশ করলে অামাকে গালি দিতে পারবেননা, তবে অামি সফল হয়েছি, গ্নোম ৩ তে গ্রাফিক্স কার্ড অনেক সময় ঠিক কাজ করেনা, তাই সমস্যা হতে পারে )

sudo add-apt-repository ppa:gnome3-team/gnome3
sudo add-apt-repository ppa:ubuntugnometeam/ppa-gen
sudo apt-get update
sudo apt-get dist-upgrade
sudo apt-get install ugr-desktop-g3
sudo apt-get upgrade

সবশেষে নিচের কমান্ডটা চালানঃ

cd ~/.config/autostart
nano gnome-shell.desktop

একটা টেক্সট ফাইল খুলবে, তাতে নিচের কোডটা পেস্ট করে সেভ করবেন।

[Desktop Entry]
Type=Application
Exec=gnome-shell --replace
Hidden=false
NoDisplay=false
X-GNOME-Autostart-enabled=true
Name[en_US]=Gnome Shell
Name=Gnome Shell
Comment[en_US]=
Comment=

এবার রিবুট করুন,(অটোমেটিক  লগইন করা থাকলে সেটি বন্ধ করে  নিন ) লগইন করার অাগে session option থেকে "GNOME shell" নির্বাচন করুন।
অাসল টিউটোরিয়ালটা এখানেঃ উবুন্টু গ্নোম রিমিক্স

Despise Wisdom

৮৯

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

সাইফ দি বস ৭ লিখেছেন:

ক্যানোনিকালের সেচ্ছাচারীতার জন্যই বুন্টু ছাড়তে হয়েছে। ইউনিটির মত আনস্টেবল জিনিসকে এখনই ডিফল্ট করে তারা কি হাতি ঘোড়া উদ্ধার করেছে জানি না তবে আমার মত আরও অনেক ইউজার হারিয়েছে তা জানি। ম্যাকের নকল করতে গিয়ে কিছুই করতে পারছে না। ম্যাকের ডকের মত ইউনিটির লঞ্চার করার ট্রাই করছে। কিন্তু তাও পারছে না।  lol

স্টিভ জবস বা মার্ক শাটলওর্থের মত ক্রিয়েটিভ লোকেরা ভবিষ্যত অনেক আগে থেকেই দেখতে পারে। অন্তত আমি তাই মনে করি। স্টিভ জবসের পার্সোনাল কম্পিউটারের ধারণা যেমন এক সময় আকাশকুসুম স্বপ্ন মনে হয়েছিল তেমনি অনেকেই মনে করেছিলেন মুথ থুবড়ে পড়বে মহাকাশ ভ্রমণ করা মার্ক শাটলওর্থের ক্যানোনিক্যাল/উবুন্টু যাত্রাও। যাই হোক, যা বোঝাতে চেয়েছি তা বোঝাতে পেরেছি কিনা জানি না! confused

শামীম লিখেছেন:

ভিডিওটাতে ইনসাল্ট করার চেষ্টা করা হইলো বলে মনে হলো। কারণ লিনাক্সের উন্নতিকে মাইক্রোসফটের কাছে শিশুসুলভ মনে হয় - অর্থাৎ অনেক কিছু করার চেষ্টা করবে, কিন্তু মাইক্রোসফট এই স্টেজ পার হয়ে বড় হয়েছে। শিশুদের পাত্তা দেয়ার কিছু নাই ... ... ... ...



সম্ভবত মাইক্রোসফট নিজেদেরকেই অভয় দিচ্ছে এই ভিডিও দিয়ে  tongue

আমার কাছে অবশ্য তা মনে হয়নি।

Microsoft vs. Linux

What happened?

A few years ago...

They had a rocky start.

Halloween 1998
Microsoft tried to scare Linux off...

...their ideas seemed too childish to Microsoft.

Even today the two of them are still bickering.

There is no truce in sight.

Or is there?

Microsoft vs. Linux? => Microsoft and Linux?

Happy Birthday, Linux!

এখানে ভুল কিছু লিখেছে বলে আমার মনে হচ্ছে না। লিনাক্স কমিউনিটির লোকজন মাইক্রোসফটকে দুই চোখে দেখতে পারে না। এই দিকে আবার, মাইক্রোসফট নিজেও স্বীকার করছে যে তারা এক সময় লিনাক্সকে ভয় দেখাতে (ধ্বংস করে দিতে) চেয়েছিল। শুধু তাই না, লিনাক্সের নতুন নতুন আবিষ্কার/ধারণাগুলোও এক সময় তাদের কাছে শিশুসুলভ মনে হত। মাইক্রোসফট যেভাবে লিনাক্সকে গ্রহণ করেছে। তার বিন্দুমাত্র মাইক্রোসফটকে গ্রহণ করতে পারেনি লিনাক্স ব্যবহারকারীরা, সত্যি নয় কি? ফাইনালি, লিনাক্স ব্যবহারকারীদের আমার কাছে তুলনামূলক বেশি আবেগ প্রবণ মনে হয়। sad

কিছুদিন আগে আমার একটি টপিকে অমি ভাইয়ের করা একটি পোস্ট আমাকে বেশ ভাবিয়ে তুলেছিল,

omiazad লিখেছেন:

Very professional, very practical. You cannot replace an Xbox with a PC or PSP with a Nintendo. Both devices has their potentials.

Let me share one statement with you, which came in mind few days back. আমি নিজেও লিনাক্সের ভক্ত ছিলাম, আমি লিনাক্সকে অনেক প্রোমট করেছি, আমার ব্লগে অনেক লেখা পাওয়া যাবে লিনাক্স নিয়ে। কিন্তু যখন কর্পোরেট জগতের সাথে যুক্ত হলাম, তখন দেখলাম লিনাক্স তো অন্য গেইম খেলছে। একটু খুলে বোঝাই, ওরাকল, মাইক্রোসফট, আই-বি-এম কর্পোরেট সলিউশন দিয়ে থাকে, তারা টাকা খরচ করে জিনিসপত্র নিয়ে গবেষণা করে, তৈরী করে এবং বিক্রি করে। এরা সবাই ওপেনসোর্সের সাথেও অতপ্রত ভাবে জড়িত। কিন্তু কিছু ওপেনসোর্সের মটিভেশন আমার কাছে ভালো লাগেনা, যেমন লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেম। কমিউনিটিকে দিয়ে ডেভলপ করিয়ে নিচ্ছে, নিজেরা কিন্তু দৃষ্টান্তমূলক টাকা-পয়সা কিন্তু খরচ করেনা ডেভলপ করার জন্য, কিন্তু শেষে কি করছে? সেটা নিয়ে বিভিন্নভাবে বিক্রি করছে। একই কাজ তারা করছে মার্কেটিং এর জন্য, কোনো খরচ ছাড়াই কমিউনিটি তাদের জন্য মার্কেটিং করে দিচ্ছে এবং তারা পয়সা বানাচ্ছে।

Bottom line হলো, তারা ডেভলপমেন্ট/মার্কেটিং করার জন্য এক পয়সাও খরচ করবে না, শুধু কমিউনিটির কাঁধে ভর করে ফুলে ফেঁপে বড় হবে আর মাল বানাবে।

আমার মনে হয় মাইক্রোসফট একটা কাজ করতে পারে, উইন্ডোসের একটা limited version বিনামূল্যে বিতরণ করতে পারে, যেটা পাবলিক ব্যবহার করবে বিনামূল্যে এবং সেখানে প্রফেশনাল লেভেলের আহামরি কিছু করা যাবেনা। সেরকম কিছু দরকার হলে তারা উন্ডোস কিনে ব্যবহার করবে!

যাই হোক, আমি নিজেও চাই মাইক্রোসফট এ্যান্ড লিনাক্সের দুনিয়াতে বসবাস করতে! dream

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

৯০

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

সবাই কার্ণেল ডেভেলপ করলে লাভটা কী হবে? কার্ণেল দিয়ে তো আর সাধারণ মানুষ কিছু করতে পারবে না। ক্যানোনিক্যাল উবুন্তু বানিয়েছে কেন? তার দর্শনটা কী? লিনাক্সকে ডেস্কটপে জায়গা দেয়া। ডেস্কটপে লিনাক্সকে জায়গা দেয়াটা যাদের উদ্দেশ্য তাদের কার্নেল নিয়ে না, বরং ইউজারস্পেস সফটওয়্যার নিয়ে কাজ করে সফল হওয়াটাই প্রয়োজন। ক্যানোনিক্যাল ০% কার্নেল কনট্রিবিউশন করলেও কিছু আসে যায় না। যার যে কাজ সেটাতেই মনোযোগ দেয়া ভাল।

অমি আজাদের কথার জবাব জাহিদ সুমন বেশ ভালভাবেই দিয়েছিলেন আপ্র-তে। তারপরও আবার বলি - পুকুরে-নদীতে মাছ আছে। সেটা যে কেউ যখন-তখন ধরে খেতে পারে। কিন্তু সেটা আরামসে কোন কাজ না করে খেতে চাইলে জেলে-পাইকারি বিক্রেতা-খুচরা বিক্রেতাকে উপযুক্ত পয়সা দিয়েই সেটা কিনে খেতে হবে।

আমি নিজেও লিনাক্স বিক্রি করে খাই। একেবারে খুবই কাস্টম-একটামাত্র কাজ করা সেই লিনাক্স যার প্রয়োজন সে ঠিকই হাজার ডলার দিয়ে কেনে। আমি সেখানে যা ব্যবহার করি, সেগুলো সব ওপেনসোর্স এবং ফ্রি। কিন্তু আমার প্রডাক্টটা আমি খুবই স্পেশালাইজড করে বানাই - যা কিনা ঐ একটা কাজই করে এবং ঐ কাস্টমারের শুধু ঐ কাজটাই দরকার। সে ইচ্ছা করলে ফ্রি উবুন্তু-রেডহ্যাট-ডেবিয়ান সার্ভারে কাজটা করতে পারে এবং সেই জ্ঞানও তার আছে। কিন্তু তারপরও তার প্রয়োজনেই সেটা সে কেনে।

৯১

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

মাইক্রোসফট এতদিনে মনে হয় বুঝতে পেরেছে, পেট মোটাদের সাথে পেরে উঠা যাবে না, তাই বন্ধুত্ব করতে চাইছে, কিন্তু এখানেও তাদেরই স্বার্থ আছে, যা ব্রাসু ভাই বলেছেন।

আর আমিও স্বপ্নচারী ভাইয়ের সাথে একমত, উবুন্টু প্রজেক্টের উদ্দেশ্য হল লিনাক্সকে ডেস্কটপ ইউসারদের কাছে নিয়ে আসা, লিনাক্স কার্ণেলের সরাসরি উন্নতি করা নয়। তারা তাদের উদ্দেশ্যে সফল হচ্ছে কিন্তু সময় নিয়ে। আশা করি অচিরেই ডেস্কপট কম্পিউটিং এ লিনাক্স চলে আসবে সম্পূর্ণরূপে।

আশিকুর_নূর'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-nd 3. এর অধীনে প্রকাশিত

৯২ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন invarbrass (২০-০৮-২০১১ ০২:০১)

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

আগের পোস্টে Canonical vs Gnome-এর উল্লেখ করেছিলাম। ডেস্কটপ লিনাক্সের উন্নতি ক্যানোনিকালের অন্যতম উদ্দেশ্য হলেও ডেস্কটপের ভিত্তিগুলো যেমন গ্নোম বা KDE-র উন্নতিতে আদৌ উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখছে কি?

কার্ণেল বাদ দিলে ইউজারল্যান্ডে উবুন্টুর সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ ভিত্তি হলো গ্নোম। গ্নোম ডেভেলপমেন্টের পেছনে এদের অবদানঃ
রেডহ্যাট - ১৬%
নোভেল (কেডিই-র প্রধান পৃষ্ঠপোষক কোম্পানী) - ১১%
সান (সোলারিস নির্মাতা) - ২%
ক্যানোনিকাল - ১%

গ্নোম ডেভেলপাররা কিন্তু ভিন্ন কথাই বলেঃ

If you doubt, for a nanosecond, that Canonical is a marketing organization masquerading as an engineering organization, then you’re either an unapologetic Ubuntu fanboy or you’re not paying attention...
One of the most irritating things about working at Red Hat was watching Canonical take credit for code that Red Hat engineers wrote.  Of course, Red Hat engineers, being the upstanding sort of chaps that they are, never said a word about it, because they’ve always been too busy carrying the load — and it’s really never made sense for Red Hatters to complain much about it anyway, because it’s not the sort of discussion that ever benefits the complaining party.

সবাই জানি ডেবিয়ান কমিউনিটির সাথেও ক্যানোনিকালের তিক্ততা চলছিলো বহু বছর ধরে।  ডেবিয়ান ফর্ক হিসাবে উবুন্টুর জন্ম হলেও ক্যানোনিকালের নিজস্ব উন্নতিগুলো ডেবিয়ানে অবদান রাখেনি, ৩০০র-ও বেশি কর্মকর্তা ক্যানোনিকালের থাকার পরেও। তবে শাটলওয়ার্থ বছর দুয়েক আগে ডেবিয়ান কমিউনিটির সাথে আরো নিবিড়ভাবে কাজ করার ঘোষণা দিলে মনোমালিন্যের কিছুটা অবসান হয়... তবে ক্যানোনিকাল সম্পর্কে অভিযোগ এখনো আছে। উইকিঃ

Ubuntu packages are based on packages from Debian's unstable branch: both distributions use Debian's deb package format and package management tools (APT and Synaptic). Debian and Ubuntu packages are not necessarily binary compatible with each other, however, and sometimes .deb packages may need to be rebuilt from source to be used in Ubuntu. Many Ubuntu developers are also maintainers of key packages within Debian. Ubuntu cooperates with Debian by pushing changes back to Debian, although there has been criticism that this does not happen often enough. In the past, Ian Murdock, the founder of Debian, has expressed concern about Ubuntu packages potentially diverging too far from Debian to remain compatible.[19] Before release, packages are imported from Debian Unstable continuously and merged with Ubuntu-specific modifications. A month before release, imports are frozen, and packagers then work to ensure that the frozen features interoperate well together.

ক্যানোনিকালের কাজকারবার আমার কাছে অনেকটা এ্যাপলের মত মনে হয়। ওএস১০ আদতে একটি বিএসডি ইউনিক্স... তৈরী হয়েছে মাক (MACH) কার্ণেল থেকে (প্রসঙ্গতঃ মাক কার্ণেলের মূল ডেভেলপার রিক রশিদ কিন্তু একজন মাইক্রোসফট ভাইস প্রেসিডেন্ট  lol), এছাড়া ফ্রীবিএসডি, নেটবিএসডি থেকেও প্রচুর কোডবেজ ওএস১০-এ এসেছে। তবে OS X তথা এ্যাপল ডেভেলপারদের দ্বারা অন্যান্য বিএসডিগুলোর কি কোনো উন্নতি হয়েছে? পক্ষান্তরে উল্লেখ করা যায় আরেকটি কমার্শিয়াল (প্রাক্তন) কোম্পানী - সান মাইক্রোসিস্টেমস। সান... স্যরী... ওরাকল সোলারিস একটি আপাদমস্তক কমার্শিয়াল ওএস হলেও তারা ZFS, DTRACE-এর মত গ্রাউন্ড-ব্রেকিং টেকনোলজী আবিষ্কার করেও নিজেদের মধ্যে রেখে দেয় নি - ওপেনসোর্স করে সমস্ত বিএসডি (এমনকি OS X) কমিউনিটির এর জন্য উন্মুক্ত করে দিয়েছিলো। লিনাক্স কার্ণেলে GPL লাইসেন্সিং জনিত ঝামেলা না থাকলে এই প্রযুক্তিগুলো লিনাক্সেও থাকতো।

যাকগে, মোদ্দা কথা - বিভিন্ন কমিউনিটি থেকে ক্যানোনিকালের বিরুদ্ধে অভিযোগ - তারা অন্যের থেকে যতটুকু নিচ্ছে, ততটুকু ফেরত দিচ্ছে না

(বিঃদ্রঃ আমি স্টর্ম নামক একটি পাইথন O/RM-এর বিশাল ফ্যান। ইহা ক্যানোনিকাল কোং-এর অবদান।  big_smile)

Calm... like a bomb.

৯৩

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

invarbrass লিখেছেন:

তবে OS X তথা এ্যাপল ডেভেলপারদের দ্বারা অন্যান্য বিএসডিগুলোর কি কোনো উন্নতি হয়েছে?

কিছু তো মনে হয় হয়েছে। CUPS তো নাকি এপল-এর বানানো (এপলের ব্যপারে আমার জ্ঞান শূণ্যের কাছাকাছি)

ক্যানোনিক্যলের মার্কেটিং পলিসি আমার কখনোই পছন্দ হয় নাই, নতুন ইউজারকে এমন একটা ধারণা দেয় যেন - লিনাক্স = উবুন্টু। অনেক ক্ষেত্রেই (যেমন এখানে) বেস হিসাবে ডেবিয়ানের ক্রেডিট এড়িয়ে যায় sick

if ($কম্পিউটার != "উইন্ডোজ" && $লিনাক্স != "উবুন্টু" && $ইন্টারনেট != "ফেসবুক") {print 'I am a real user !';}

নিউরোন তরঙ্গের লগবই

কলম কবির'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

৯৪

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

তবে যাই বলেন না কেন, মাইক্রোসফট আর লিনাক্স কমিউনিটির সহাবস্থান সম্ভব নয়, আমি তাই বিশ্বাস করি।

মাইক্রোসফট ১৯৯৮ সালে ওপেনসোর্স আন্দোলন, বিশেষ করে লিনাক্সকে ধ্বংস করার জন্য যে সব পরিকল্পনা নিয়েছিল, তার ছিটেফোটা বিবরণ রয়েছে উইকিপিডিয়ায়

@অয়ন খান, লিনাক্স ইউজাররা মাইক্রোসফটকে শত্রু হিসেবে দেখে তাদের ধ্বংসাত্বক কার্যক্রমের জন্যই। লিনাক্স ইউজাররা ধ্বংসাত্বক কিছু করে না এবং করতেও অক্ষম।

<?php
ঘুরে আসুন আমার ব্লগ Adhikary.NET
%>

অনিরুদ্ধ'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

৯৫

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

@Invarbrass ভাই,

আপনার দেয়া শেষ লিংকটাতেই ক্যানোনিকেলের রেসপন্সটাও অযৌক্তিক নয়:

Asay is referring to the fact that Red Hat was already founded when GNOME began in 1997, while Canonical did not exist until 2004.

গ্নোম শুরু হওয়ার আগে থেকেই রেডহ্যাট ছিল, কাজেই রেডহ্যাট যে এটাতে মূল কন্ট্রিবিউটর হবে এতে অবাক হওয়ার কিছু নাই।

আমার প্রশ্ন হল, ক্যানোনিকেল শুরু করার পর একটু স্টেবল কন্ডিশনে আসার পর থেকে এদের কন্ট্রিবিউশনের সাথে বাকীদের কন্ট্রিবিউশন কি তুলনীয় পর্যায়ে আছে না নাই?

আর আমিও স্বপ্নচারী ভাইয়ের সাথে একমত: যার যেটা কাজ সেটা করলেই ভাল। উবুন্টু দিয়ে ডেস্কটপকে সাধারণ ব্যবহারকারীর কাছে সহজ করতে চেয়েছে ক্যানোনিকেল -- যেটাতে তাঁরা সফল - অস্বীকার করার কিছু নাই। ক্যানোনিকেল যদি কার্নেল ডেভলপমেন্টের টার্গেট নিয়ে মাঠে নামতো তাহলে নিশ্চয়ই ওদিকে অবদান থাকতো। আর গ্নোম এনভায়রনমেন্টের পাশাপাশি ক্যানোনিকেল তো এখন ইউনিটি নিয়ে কাজ করছে। সেটা কি ক্লোজড সোর্স, নাকি লাইসেন্স এমন যে এটাতে অন্য কেউ অবদান রাখতে পারবে না কিংবা ব্যবহার করতে পারবে না?

আরেকটা ব্যাপার হল, বৃহত্তর কমিউনিটিতে সবার জন্য গ্রহণযোগ্য করে কাজ করতে চাইলে এর গতি কিছুটা শ্লথ হত; ক্যানোনিকেল নিজে নিজেই সিম্পল স্ক্যান ডেভেলপ করেছে - যা গ্লোম গ্রহণ করে নাই। আবার, বাজার, আপস্টার্ট বা লঞ্চপ্যাডের মত জায়গায় অনেক কন্ট্রিবিউট করেছে।

শামীম'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

৯৬

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

ক্যানোনিকাল এ পর্যন্ত যা দিয়েছে তার তুলনা নাই। উবুন্তু আসার আগে মানুষ লিনাক্স চিনতোই না। যারা চিনত, তারা যমের মত ভয় করত।

ওপেনসোর্স দুনিয়া কেবল সফটওয়্যার কোড লেখার জন্যই না। সেটা খুবই ছোট্ট একটা অংশ মাত্র। বাগরিপোর্ট, কমিউনিটি চালানো, নতুন ইউজারের স্টুপিড প্রশ্নের জবাব ধৈর্যসহকারে দেওয়া (কেবল এই একটা কারণেই আজকে ডেস্কটপে লিনাক্স, RTFM পয়েন্ট করে ইউজারবেস পাওয়া যায় না), লঞ্চপ্যাডের পিপিএ কনসেপ্ট, ডেভেলপারদের বিভিন্ন প্লাটফরম দাঁড় করিয়ে দেওয়া ইত্যাদি অনেক অনেক কাজ অনেক অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

প্রচুর ওপেনসোর্স সফটওয়্যার মুখ থুবড়ে পড়ে গেছে - কারণ তারা শুধু কোড লেখায় ব্যস্ত। ঐ প্রজেক্টের উপর কোন কমিউনিটি গড়ে তোলার ব্যাপারে কোনরকম আগ্রহ নাই। অন্যতম উদাহরণ বিএসডি ওএসগুলো। ওপেনবিএসডি হচ্ছে সবচেয়ে সরেস এ ব্যাপারে। স্টুপিডগুলো এটাও বোঝে না যে তাদের মেইন স্কেলেটনে শূণ্য বাগ থাকাটা যেমন জরুরী তেমনই একজন ব্যবহারকারীর জন্য নোম, কেডিই ডেস্কটপে শূন্য বাগ থাকাটাও জরুরী। শুধু তাই না, কেউ কোন প্রশ্ন, সাজেশন নিয়ে এগোলে তাকে মধ্যমা দেখিয়ে RTFM বলাটা কোন উপকারে আসে না।

স্রেফ ক্যানোনিকাল থেকে আইডিয়া এসেছে বলে নোম ফাউন্ডেশন ইউনিটিকে পাত্তা দেয়নি। এসব শুধুমাত্র ইনফেরিওরিটি কমপ্লেক্স। মানুষ লিনাক্স বলতে উবুন্তু বোঝে সেটাই হল সবার মূল সমস্যা। সাধারণ মানুষ লিনাক্স-উবুন্তুর পার্থক্য বোঝে না, বোঝার প্রয়োজনও নাই। লিনাক্স ব্যবহার করছে সেটাই মূল সফলতা। অহেতুক তাদের উপর লক্ষ-কোটি ডিস্ট্রিবিউশনের ইতিহাস চাপিয়ে দিয়ে ভয় পাইয়ে দেয়ার কোন মানে নাই। যার আগ্রহ হবে সে নিজেই জেনে নেবে। এ ধরণের এলিট-হ্যাকার মানসিকতা যতদিন মানুষের দুর না হবে, ততদিন লিনাক্সের কিচ্ছু হবে না। সাইডলাইনেই সবসময় থাকতে হবে।

৯৭

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

শামীম লিখেছেন:

আর আমিও স্বপ্নচারী ভাইয়ের সাথে একমত: যার যেটা কাজ সেটা করলেই ভাল। উবুন্টু দিয়ে ডেস্কটপকে সাধারণ ব্যবহারকারীর কাছে সহজ করতে চেয়েছে ক্যানোনিকেল -- যেটাতে তাঁরা সফল - অস্বীকার করার কিছু নাই। ক্যানোনিকেল যদি কার্নেল ডেভলপমেন্টের টার্গেট নিয়ে মাঠে নামতো তাহলে নিশ্চয়ই ওদিকে অবদান থাকতো।

কার্নেল তো লিনাক্সের বাইরে নয় :S

শামীম লিখেছেন:

আর গ্নোম এনভায়রনমেন্টের পাশাপাশি ক্যানোনিকেল তো এখন ইউনিটি নিয়ে কাজ করছে। সেটা কি ক্লোজড সোর্স, নাকি লাইসেন্স এমন যে এটাতে অন্য কেউ অবদান রাখতে পারবে না কিংবা ব্যবহার করতে পারবে না?

উবুন্টু ছাড়া আর কোন ওএস এ উইনিটি উপলভ্য হয়েছে ? কেন হয় নি ?

ক্যানোনিকেল এর দুর্নাম আছে যে তারা আপস্ট্রিমে কন্ট্রিবিউট করে না,এবং এটা নিশ্চয় নির্ভেজাল মিথ্যা কথা নয়, অনেকাংশেই সত্য, সেটা তাদের ইচ্ছাকৃত বা অনিচ্ছাকৃত যাই হোক না কেন।

শামীম লিখেছেন:

আবার, বাজার, আপস্টার্ট বা লঞ্চপ্যাডের মত জায়গায় অনেক কন্ট্রিবিউট করেছে।

নিজের যে ক্ষেত্রে দরকার সেটা নিজে কাজ করা, স্বার্থভিলাষীদের কাজ, মুক্তমনা ওপেনসোর্স ফিলসফির অনুসরন নয়।

মোদ্দা কথা হচ্ছে, যা রটে, তা কিছুটা হলেও বটে, এবং এখানে এটার পরিমান 'কিছুটা''র থেকে বেশিইই মনে হয়।


অনিরুদ্ধ লিখেছেন:

তবে যাই বলেন না কেন, মাইক্রোসফট আর লিনাক্স কমিউনিটির সহাবস্থান সম্ভব নয়, আমি তাই বিশ্বাস করি।

কথা সত্য,আসলেই কিন্তু এটা সম্ভব নয়, ভারতবর্ষ বা আমেরিকার ইতিহাস দেখুন, শয়তান পার্টির সাথে সন্ধি করা যায় না/করার ফলাফল ভালো হয় না।

সারিম'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

৯৮ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন স্বপ্নচারী (২০-০৮-২০১১ ১৩:৫২)

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

সারিম লিখেছেন:

নিজের যে ক্ষেত্রে দরকার সেটা নিজে কাজ করা, স্বার্থভিলাষীদের কাজ, মুক্তমনা ওপেনসোর্স ফিলসফির অনুসরন নয়।

মাইক্রোসফটের টাকার লোভে অহেতুক মাইক্রোসফটের সাথে চুক্তিতে আসা কি ওপেনসোর্স ফিলোসফি? তারপর নিজেকে মাইক্রোসফটের পার্টনারের কাছেই বিক্রি করে দেয়াটা কি ওপেনসোর্স ফিলসফি? ওপেনসুসে ভাল লাগে, তাই ব্যবহার করো। কিন্তু অন্যটার ব্যাপারে অপপ্রচার চালানোর কী প্রয়োজন?

আবারও বলি, সফটওয়্যারের কোড লেখাটা খুবই ক্ষুদ্র একটা অংশ ওপেনসোর্স বা যেকোন সফটওয়্যার প্রজেক্টের জন্য। এটার ব্যবহারকারী, তার চারদিকে শক্ত কমিউনিটি গড়ে তোলাটা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজ। যেটা অন্য কোন কোম্পানীই করেনি কখনও, এখনও করছে না।

অফটপিকঃ টপিকটির শুরুতে কিছু অনাকাঙ্ক্ষিত কথা চালাচালিতে যারা টপিক বন্ধ করে দিতে চাইছিলেন, তারা কি বুঝতে পারছেন যে কেন সেসব কথাবার্তা এড়িয়ে গিয়ে নিজেদের আলোচনা বজায় রাখতে হয়। টপিকটা যদি তখন বন্ধ করা হত, তবে কি এ পর্যন্ত এতসব আলোচনা হত? অনুগ্রহ করে ধৈর্যচ্যুত হবেন না। আমাদের সবকিছুতে ধৈর্যের অভাব লক্ষ্য করা যাচ্ছে। গোল্ডফিশের মত হয়ে যাচ্ছি আমরা - কেবল বর্তমান নিয়ে থাকতে পারি, পেছনে কী হয়েছিল বা সামনে কী হবে চিন্তাই করতে পারি না।

৯৯ সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন জাহিদ সুমন (২০-০৮-২০১১ ১৪:০৭)

Re: লিনাক্স বা ওপেনসোর্সপ্রেমী বলেই যে মাইক্রোসফটের বিরোধিতা করি, তা নয়

কমিউনিটির বিকল্প কোন কিছুই হতে পারে না। সেটা বাস্তব সমাজ ব্যবস্থায় হোক বা ভার্চুয়্যাল দুনিয়ায় হোক। আবার অর্গানাইজেশনের বিকল্প ও কমিউনিটি হতে পারে না। একটি পরিপূর্ন সমাজ ব্যবস্থায় অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক ব্যবস্থার পরিপূরক হিসেবে উভয়ের প্রয়োজন রয়েছে।

লিনাক্সের মাল্টিডাইমেনশনাল ডেভেলপমেন্টকে আমরা আজ এ অবস্থায় পেতাম না যদি সবার অবদান না থাকতো। তাই রেডহ্যাট, নোভেল, ক্যানোনিকাল যেমন ওপেনসোর্স ইতিহাসের অংশ ঠিক তেমনই ডেবিয়ান, স্ল্যাকওয়ার, নোম এর মত কমিউনিটি নির্ভর প্রতিষ্ঠান/প্রজেক্টসমূহ গুরুত্বপূর্ন ও অপরিহার্য উপাদান।

বৈচিত্র্যতাই একটি পরিপূর্ন কাঠামোকে সত্যিকার অর্থে মজবুত ভিত্তিতে দাড় করিয়ে থাকে। আমরা সকলে এ বৈচিত্র্যের অংশ হিসেবে গর্বিত।

লিনাক্সের এ অন্তর্নিহিত শক্তির কারনে অনুমান করাটা কঠিন নয় যে সামনে কোন কমিউনিটি বা প্রতিষ্ঠান না থাকলেও অন্য আরেকটি প্রতিষ্ঠান সেই দায়িত্ব নিয়ে এগিয়ে যাবে। ঠিক মানবসভ্যতার বিবর্তনের মত। আজকের প্রযুক্তি যেমন পরবর্তী প্রজন্ম উত্তরাধিকার সূত্রে পেয়ে থাকে এবং নিজের তাগিদেই একে উন্নয়ন করতে থাকে। আবার ভবিষ্যত প্রজন্মের হাতেও এটি পূর্বের ন্যায় স্থানান্তরিত হয়ে থাকে। এ ইকোসিস্টেম পুরো মানবসভ্যতার অগ্রগতিতে ভূমিকা রেখে চলেছে।

অনেক কঠিন কঠিন কথা বলে ফেললাম মনে হয়...

লিনাক্স নিয়ে লিখছি বাংলাতে আমার ব্লগে