টপিকঃ বাংলাদেশ ব্যাংকের দ্বায়-দ্বায়িত্ব

বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন ওয়েবসাইটে সরাসরি কমপ্লেইন বক্স রেখেছে। খুবই আনন্দের সংবাদ। গত কয়েকমাস আগে আমি ইষ্টার্ণ ব্যাংকের বিরুদ্ধে এখানে অভিযোগ করেছিলাম। পরে জানলাম এটা একটিভ। অর্থাৎ অভিযোগটা তারা তদারকি করেছে। ইষ্টার্ণ ব্যাংকের হেড অফিস থেকে ফোন করে আমাকে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছিল।
৩/৪ দিন আমি আবার অভিযোগ করি। তবে এবার বাংলাদেশ ব্যাংকের বিরুদ্ধেই:-O।
দেশে অনলাইন ব্যাংকিং এর অনগ্রগতিতে বাংলাদেশ ব্যাংকের দ্বায়িত্বহীনতা, বাণিজ্যিক ও বিদেশী ব্যাংকের শহরমূখীতা, ব্যাংকগুলোর ইচ্ছেমত যখন-তখন বিভিন্ন চার্জ বসানো এবং এসব বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের উদাসীনতা নিয়েই আমি অভিযোগগুলো করি। খুবই ধারালো ভাষায় লিখেছিলাম। তবুওআজকে তাদের কাছ থেকে মেইল পেলাম। ভাল লাগল তাদের রেসপন্স দেখে। অন্তত অভিযোগকারীকে যে একটা ধন্যবাদ দিতে হয়, এটা তারা শিখেছে দেখে ভাল লাগল (শত হলেও নিজের ফিল্ড তো;D)।

Dear Sir,

Thanks for the concern of you regarding the banking sector and it's regulatory authority of our country.

In you mail you pointed out some flaws of Bangladesh Bank and we like to say that we also agree with you on some respect. As a valued and  conscious citizen as well as part of the regulatory authority of  financial sector of Bangladesh, we like to have your views to mitigate those (your pointed out) flaws. We like to exchange views and work together(explicit or implicitly) regarding this matter.

We hope that we will get your reply soon and we can work together.

With Best Regards,

Mohammad Rahat Uddin
Programmer
ITOCD
Head Office,Bangladesh Bank

[img]http://twitstamp.com/thehungrycoder/standard.png[/img]
what to do?

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন তপু (২২-০৬-২০০৭ ০৯:০৫)

Re: বাংলাদেশ ব্যাংকের দ্বায়-দ্বায়িত্ব

ধন্যবাদ কোডারকে, এই বিষয়টা আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য। আমাদের জানা থাকলো।
কয়েকদিন আগে ই-গভর্ণেস নামে কে যেন একটা থ্রেড খুলেছিল। ওখানে মন্তব্য করতে পারিনি। তবে প্রাসঙ্গিক মনে হওয়ায় এখানে লিখছি। ই-গভর্ণেস বলতে আমি যেটুকু আমি বুঝি তাতে মনে হয় এর বহু রুপ, ব্যাবহার, বৈশিস্ট্য আছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের এই সার্ভিসটিও আমার মনে হয় ই-গভর্ণেসেরই একটা অন্যন্য রুপ ও ব্যাবহার। (যদি সার্ভিসটা সক্রিয় থাকে??)
অফটপিকঃ

হাঙ্গরিকোডার লিখেছেন:

(শত হলেও নিজের ফিল্ড তো;D)।

কোডার ভাইয়ের কোনটা যে নিজের ফিল্ড আর কোনটা যে নিজের নয়, সেটাই এখন পর্যন্ত বুঝলাম না। যতদুর মনে পড়ছে, কোডার ভাই ব্যাংকিং ও ফাইন্যান্স নিয়ে পড়ছে,  আবার কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তি নিয়ে ভাল কাজ করছে। তাই কোনটা যে তার নিজের ফিল্ড আর কোনটা যে তার নিজের নয়, তাইতো বুঝলাম না। কেমন ধন্ধের মধ্যে পড়ে গেলাম!!!!!:(:(

তোমাকে ভালবাসি, তোমারই চরণে ঠাঁই,
মা,
তোমার ভালবাসার কোন তুলনা নাই।

Re: বাংলাদেশ ব্যাংকের দ্বায়-দ্বায়িত্ব

হুম.....এদের সার্ভিসটা একটিভ। অতএব আপনি প্রয়োজন হলে এটি ব্যবহার করতে পারেন।

অফটপিক: নিজের ফিল্ড:
আমি তো ফাইন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং এ পড়ছি। সেহেতু এটাই তো আমার নিজের ফিল্ড একাডেমিক দিকে থেকে। নেশাগ্রস্থ হওয়ায় তথ্য প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করি। এটা তো সিএসই বা আইসিই দের ফিল্ড। এটা তো আমার একাডেমিক আওতার বাইরে। আমি তো এখানে পরগাছা--(। যদিও বর্তমান সময়ে প্রচুর নন-সিএসই এ ফিল্ড কাজ করছে। তবে আমি যে সময় এর পেছনে দিয়েছি তার ২৫% ও যদি আমার একাডেমিক পড়াশোনার পেছনে দিতাম, তাহলে হয়তো আমার পরিবার ও শিক্ষকগণকে হতাশ করতে হত না।
আরেকটা বিষয়, আমি সিএসইতে পড়িনি। আমার এখন মনে হয় আমি যদি তা পড়তাম তাহলে আমি কম্পিউটারের কিছুই শিখতাম না। কারণ রসহীন-বাধ্যতামূলক টেক্সবুক পড়তে আমার ভাল লাগে না।

[img]http://twitstamp.com/thehungrycoder/standard.png[/img]
what to do?

Re: বাংলাদেশ ব্যাংকের দ্বায়-দ্বায়িত্ব

হাঙ্গরিকোডার লিখেছেন:

বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন ওয়েবসাইটে সরাসরি কমপ্লেইন বক্স রেখেছে। খুবই আনন্দের সংবাদ। গত কয়েকমাস আগে আমি ইষ্টার্ণ ব্যাংকের বিরুদ্ধে এখানে অভিযোগ করেছিলাম। পরে জানলাম এটা একটিভ। অর্থাৎ অভিযোগটা তারা তদারকি করেছে। ইষ্টার্ণ ব্যাংকের হেড অফিস থেকে ফোন করে আমাকে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছিল।
৩/৪ দিন আমি আবার অভিযোগ করি। তবে এবার বাংলাদেশ ব্যাংকের বিরুদ্ধেই:-O।
দেশে অনলাইন ব্যাংকিং এর অনগ্রগতিতে বাংলাদেশ ব্যাংকের দ্বায়িত্বহীনতা, বাণিজ্যিক ও বিদেশী ব্যাংকের শহরমূখীতা, ব্যাংকগুলোর ইচ্ছেমত যখন-তখন বিভিন্ন চার্জ বসানো এবং এসব বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের উদাসীনতা নিয়েই আমি অভিযোগগুলো করি। খুবই ধারালো ভাষায় লিখেছিলাম। তবুওআজকে তাদের কাছ থেকে মেইল পেলাম। ভাল লাগল তাদের রেসপন্স দেখে। অন্তত অভিযোগকারীকে যে একটা ধন্যবাদ দিতে হয়, এটা তারা শিখেছে দেখে ভাল লাগল (শত হলেও নিজের ফিল্ড তো;D)।

বাংলাদেশ ব্যাংকে সরাসরি কমপ্লেইন বক্স রেখেছে। খুবই দুঃখের সংবাদ। কমপ্লেইন করার জায়গায় কমপ্লেইনকারী ব্যক্তির চাইতে কমপ্লেইন গ্রহণকারী ব্যক্তির সংখ্যা বেশী থাকার ফলে কমপ্লেইন করতে গিয়ে নাজেহাল হওয়ার সম্ভাবনা আছে। ভবিষ্যতে কমপ্লেইন গ্রহণ করার জন্যে সরাসরি ঘুষ চাইতে পারে। ঘুষ দিলে তখন অন্তত তারা অভিযোগকারীকে একটা ধন্যবাদ দেয়া শিখতে পারে।

Re: বাংলাদেশ ব্যাংকের দ্বায়-দ্বায়িত্ব

তানজিনা লিখেছেন:
হাঙ্গরিকোডার লিখেছেন:

বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন ওয়েবসাইটে সরাসরি কমপ্লেইন বক্স রেখেছে। খুবই আনন্দের সংবাদ। গত কয়েকমাস আগে আমি ইষ্টার্ণ ব্যাংকের বিরুদ্ধে এখানে অভিযোগ করেছিলাম। পরে জানলাম এটা একটিভ। অর্থাৎ অভিযোগটা তারা তদারকি করেছে। ইষ্টার্ণ ব্যাংকের হেড অফিস থেকে ফোন করে আমাকে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছিল।
৩/৪ দিন আমি আবার অভিযোগ করি। তবে এবার বাংলাদেশ ব্যাংকের বিরুদ্ধেই:-O।
দেশে অনলাইন ব্যাংকিং এর অনগ্রগতিতে বাংলাদেশ ব্যাংকের দ্বায়িত্বহীনতা, বাণিজ্যিক ও বিদেশী ব্যাংকের শহরমূখীতা, ব্যাংকগুলোর ইচ্ছেমত যখন-তখন বিভিন্ন চার্জ বসানো এবং এসব বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের উদাসীনতা নিয়েই আমি অভিযোগগুলো করি। খুবই ধারালো ভাষায় লিখেছিলাম। তবুওআজকে তাদের কাছ থেকে মেইল পেলাম। ভাল লাগল তাদের রেসপন্স দেখে। অন্তত অভিযোগকারীকে যে একটা ধন্যবাদ দিতে হয়, এটা তারা শিখেছে দেখে ভাল লাগল (শত হলেও নিজের ফিল্ড তো;D)।

বাংলাদেশ ব্যাংকে সরাসরি কমপ্লেইন বক্স রেখেছে। খুবই দুঃখের সংবাদ। কমপ্লেইন করার জায়গায় কমপ্লেইনকারী ব্যক্তির চাইতে কমপ্লেইন গ্রহণকারী ব্যক্তির সংখ্যা বেশী থাকার ফলে কমপ্লেইন করতে গিয়ে নাজেহাল হওয়ার সম্ভাবনা আছে। ভবিষ্যতে কমপ্লেইন গ্রহণ করার জন্যে সরাসরি ঘুষ চাইতে পারে। ঘুষ দিলে তখন অন্তত তারা অভিযোগকারীকে একটা ধন্যবাদ দেয়া শিখতে পারে।

হা হা.. ভালো জোক!

শামীম'এর ওয়েবসাইট

লেখাটি CC by-nc-sa 3.0 এর অধীনে প্রকাশিত

সর্বশেষ সম্পাদনা করেছেন আউল (১৮-০৭-২০০৭ ২০:০৮)

Re: বাংলাদেশ ব্যাংকের দ্বায়-দ্বায়িত্ব

তানজিনা লিখেছেন:
হাঙ্গরিকোডার লিখেছেন:

বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন ওয়েবসাইটে সরাসরি কমপ্লেইন বক্স রেখেছে। খুবই আনন্দের সংবাদ। গত কয়েকমাস আগে আমি ইষ্টার্ণ ব্যাংকের বিরুদ্ধে এখানে অভিযোগ করেছিলাম। পরে জানলাম এটা একটিভ। অর্থাৎ অভিযোগটা তারা তদারকি করেছে। ইষ্টার্ণ ব্যাংকের হেড অফিস থেকে ফোন করে আমাকে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছিল।
৩/৪ দিন আমি আবার অভিযোগ করি। তবে এবার বাংলাদেশ ব্যাংকের বিরুদ্ধেই:-O।
দেশে অনলাইন ব্যাংকিং এর অনগ্রগতিতে বাংলাদেশ ব্যাংকের দ্বায়িত্বহীনতা, বাণিজ্যিক ও বিদেশী ব্যাংকের শহরমূখীতা, ব্যাংকগুলোর ইচ্ছেমত যখন-তখন বিভিন্ন চার্জ বসানো এবং এসব বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের উদাসীনতা নিয়েই আমি অভিযোগগুলো করি। খুবই ধারালো ভাষায় লিখেছিলাম। তবুওআজকে তাদের কাছ থেকে মেইল পেলাম। ভাল লাগল তাদের রেসপন্স দেখে। অন্তত অভিযোগকারীকে যে একটা ধন্যবাদ দিতে হয়, এটা তারা শিখেছে দেখে ভাল লাগল (শত হলেও নিজের ফিল্ড তো;D)।

বাংলাদেশ ব্যাংকে সরাসরি কমপ্লেইন বক্স রেখেছে। খুবই দুঃখের সংবাদ। কমপ্লেইন করার জায়গায় কমপ্লেইনকারী ব্যক্তির চাইতে কমপ্লেইন গ্রহণকারী ব্যক্তির সংখ্যা বেশী থাকার ফলে কমপ্লেইন করতে গিয়ে নাজেহাল হওয়ার সম্ভাবনা আছে। ভবিষ্যতে কমপ্লেইন গ্রহণ করার জন্যে সরাসরি ঘুষ চাইতে পারে। ঘুষ দিলে তখন অন্তত তারা অভিযোগকারীকে একটা ধন্যবাদ দেয়া শিখতে পারে।

কুনাইন জ্বর সারাবে - কুনাইন সারাবে কে? অভিযোগ গ্রহনকারীর বিরুদ্ধেই যদি অভিযোগ হয় তখন, কার কাছে অভিযোগ করতে হবে।

"We want Justice for Adnan Tasin"

Re: বাংলাদেশ ব্যাংকের দ্বায়-দ্বায়িত্ব

হাঙ্গরিকোডার লিখেছেন:

দেশে অনলাইন ব্যাংকিং এর অনগ্রগতিতে বাংলাদেশ ব্যাংকের দ্বায়িত্বহীনতা, বাণিজ্যিক ও বিদেশী ব্যাংকের শহরমূখীতা, ব্যাংকগুলোর ইচ্ছেমত যখন-তখন বিভিন্ন চার্জ বসানো এবং এসব বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের উদাসীনতা নিয়েই আমি অভিযোগগুলো করি। খুবই ধারালো ভাষায় লিখেছিলাম।

এর পরেরবার যখন যাবেন তখন উদাসীনকে সংগে নিয়ে যাবেন। smile

Re: বাংলাদেশ ব্যাংকের দ্বায়-দ্বায়িত্ব

শুনছি অনেকেই অভিযোগ করছে  কিন্ত প্রতিকার পাচ্ছে ক'জনায়।

"We want Justice for Adnan Tasin"